বরিশালের ইলিশ মোকামে ফিরেছে প্রাণ

সিটি নিউজ ডেস্ক:: নদী ও সাগর মোহনায় জেলেদের জালে ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা পড়ছে ইলিশ। মৌসুমের শুরুতেই আবহাওয়া অনুকূল থাকায় ইলিশ মিলছে বলে দাবি জেলেদের। এতে জেলে ও মৎস্যজীবীদের মুখে ফুটেছে আনন্দের ঝিলিক।

মৎস্যজীবীরা বলছেন, মৌসুমের শুরুতে মাঝারি আকারের ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে বেশি। বড় ইলিশও পাওয়া যাচ্ছে, তবে পরিমাণে কম।

এদিকে ২৩ জুলাই সাগরে মাছ ধরায় ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হলে জেলেদের জালে আরো বেশি ইলিশ ধরা পড়বে এবং তখন সরবরাহও বাড়বে বলে আশা মৎস্য কর্মকর্তাদের।

প্রচুর ইলিশের দেখা মেলায় কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে বরিশালের মোকামে। ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, গত সোমবার বরিশাল মোকামে হাজার মণ ইলিশ বেচাকেনা হয়েছে। এর বড় অংশ নিষেধাজ্ঞা ভেঙে সাগর মোহনা থেকে ধরা ইলিশ। ফলে একদিকে যেমন কর্মচাঞ্চল্য হয়ে উঠেছে মোকাম, তেমনি হাসি ফুটতে শুরু করেছে জেলে ও মৎস্য ব্যবসায়ীদের মুখে।

বরিশাল নগরীর মৎস্য মোকাম ঘুরে দেখা গেছে, বেশ কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে সেখানে। দুইদিন ধরে সাগরের বোট আসছে। স্থানীয় মাছও কিছু পাওয়া যাচ্ছে। যে কারণে মোকামে ব্যস্ততা বেড়েছে শ্রমিকদের।

এই মোকামের আড়তদার ইয়ার উদ্দিন বলেন, দুদিন ধরে ইলিশ আসা শুরু করেছে। গত দুদিনে প্রতিদিনই মোকামে হাজার মণের বেশি ইলিশ বেচাকেনা হয়েছে।

গত মঙ্গলবার বরিশাল মোকামে দেড় কেজি আকারের প্রতি মণ ইলিশ ৫০ হাজার, ১ কেজি ২০০ গ্রাম ওজনের প্রতি মণ ৩৮-৪০ হাজার, এক কেজি ওজনের প্রতি মণ ৩৪ হাজার, এলসি সাইজ (৬০০-৯০০ গ্রাম) প্রতি মণ ২৯ হাজার, ভেলকা (৪০০-৬০০ গ্রাম) প্রতি মণ ২০ হাজার এবং গোটলা সাইজ প্রতি মণ ১৪ হাজার টাকায় বিক্রি হয়।

বরিশাল মৎস্য কর্মকর্তা (ইলিশ) ড. বিমল চন্দ্র দাস বলেন, ১ জুলাই থেকে ইলিশ মৌসুম শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে জাটকা নিধন ও ষষ্ঠ অভয়াশ্রমের নিষেধাজ্ঞা শেষ হয়েছে। ২৩ জুলাই পর্যন্ত সাগরে মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা চলমান রয়েছে।

তিনি বলেন, এখন নদ-নদীতে ইলিশ শিকারে কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় অভ্যন্তরীণ নদ-নদীতে প্রচুর ইলিশ ধরা পড়ছে। ২৩ জুলাই সাগরে মাছ ধরার নিষেধাজ্ঞা শেষ হয়ে গেলে সাগরেও প্রচুর ইলিশ ধরা পড়বে। তখন মোকামগুলো ইলিশে সয়লাব হবে আশা করেন তিনি।

সুত্র:: মতবাদ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin