গভর্নর ফজলে কবিরের আরেক ‘ইনিংস’ শুরু

সিটি নিউজ ডেস্ক:: বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর পদে ফের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পেয়েছেন ফজলে কবির। আজ বুধবার রাষ্ট্রপতির আদেক্রমে তাকে অরো দুই বছরের জন্য নিয়োগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ।

বিভাগের উপসিচব মো. জেহাদ উদ্দিন স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বাংলাদেশ ব্যাংক (সংশোধনী) আইন ২০২০ এর ১০ (৫) এবং ১৩ (৩) অনুচ্ছেদের বিধান অনুযায়ী ফজলে কবিরকে আরো দুই বছরের জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হলো। তার বয়স ৬৭ বছর না হওয়া পর্যন্ত তিনি ওই পদে দায়িত্ব পালন করবেন। অর্থাৎ চলতি নিয়োগ অনুসারে তিনি ২০২২ সালের ৪ জুলাই অবসরে যাবেন।

এতে আরো বলা হয়, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর পদে দায়িত্ব পালনকালে ফজলে কবির তার চাকরির চুক্তি মোতাবেক বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে বেতন-ভাতা ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা প্রাপ্ত হবেন। নিয়োগের অন্যান্য বিষয়াদি চুক্তিপত্রে নির্ধারিত থাকবে।

Bangladesh Bank depositedবাংলাদেশ ব্যাংক- ফাইল ছবি

অবিলম্বে এ আদেশ কার্যরক করার জন্য প্রজ্ঞাপনে বলা হয়। তবে ফজলে কবির কবে নাগাদ দায়িত্ব গ্রহণ করবেন তা জানা যায়নি। বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনিও এ বিষয়ে সুনির্দিষ্টভাবে কিছু বলতে পারছেন না।

২০১৬ সালের ১৫ মার্চ রিজার্ভ চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর পদ থেকে পদত্যাগ করেন তৎকালীলন গভর্নর আতিউর রহমান। এর পরদিনই এক প্রকার তাড়াহুড়া করে চার বছরের জন্য এ পদে ফজলে কবিরকে নিয়োগ দেয় সরকার। তবে তখন তিনি দেশের বাইরে থাকায় সঙ্গে সঙ্গে দায়িত্ব গ্রহণ করেননি। পরে ওই বছরের ২০ মার্চ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরের দায়িত্ব নেন তিনি।

চুক্তির মেয়াদ অনুসারে চলতি বছরের ১৯ মার্চ তার চাকরির মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু তার আগে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি তার চাকরির মেয়াদ আরো ৩ মাস ১৩ দিন বাড়ি দেয় সরকার। বাংলাদেশ ব্যাংক অর্ডার অনুযায়ী সরকার চাইলে গভর্নরের চাকরির মেয়াদ আরেক দফা বাড়াতে পারে এবং ৬৫ বছর পর্যন্ত কেউ এ পদে দায়িত্ব পালন করতে পারে। সে হিসাবে ফজলে কবিরের ৬৫ বছর পূর্ণ হয় এবং চাকরির মেয়াদ শেষ হয় চলতি মাসের ৩ তারিখ।

তবে এরই মধ্যে গত ৯ জুলাই জাতীয় সংসদে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরের চাকরির বয়স ৬৭ বছর করে একটি সংশোধনী বিল পাস করা হয়। যার প্রেক্ষিতে ফজলে কবিরকে ফের দুই বছরের জন্য গভর্নর পদে নিয়োগ দেওয়া হয়।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin