মমতার মন্ত্রী ও প্রভাবশালী মুসলিম নেতাকে ভিসা দিল না বাংলাদেশ

সিটি নিউজ ডেস্ক:: পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় নেতৃত্বাধীন সরকারের মন্ত্রী ও প্রভাবশালী মুসলিম নেতা সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরীকে ভিসা দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকার।ভিসা আবেদনের যথাযথ প্রক্রিয়া অনুস্মরণ সত্ত্বেও বাংলাদেশ সরকার ভিসা দেয়নি বলে অভিযোগ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের এই মুসলিম নেতা। তার দাবি, ভিসা প্রত্যাখ্যানের কোনো কারণ জানানো হয়নি তাকে।

কলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশ ডেপুটি হাই কমিশন বলছে, টেকনিক্যাল কারণে ভিসা পাননি সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী। আগামী ২৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ সফরে আসার কথা ছিল পশ্চিমবঙ্গের এই মু’সলিম নেতার।মমতা বন্দোপাধ্যায় স’রকারের মন্ত্রিসভার এই সদস্য দেশটির ইংরেজি দৈনিক ইন্ডিয়া ট্যুডেকে বলেছেন, এ সফরের জন্য আমাকে স্ব’রা’ষ্ট্র ম’ন্ত্রণালয় থেকে অনাপত্তিপত্র (এনওসি) দেয়া হয়েছিল। এমনকি মুখ্যমন্ত্রীও এই সফরের ব্যাপারে জানতেন। কিন্তু শেষ মুহূর্তে এসে আমাকে সফর বাতিল করতে হবে।ভারতীয় বার্তাসংস্থা এএনআইকে সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আমি প্রায় ১০ দিন আগে বাংলাদেশের ভিসার জন্য আবেদন করেছিলাম।

আমার টিকিটও বুকড করা হয়েছে। কিন্তু আজ (বুধবার) ভিসা প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে বলে আমাকে জানানো হয়েছে। তবে প্রত্যাখ্যানের কোনো কারণ জানানো হয়নি।বাংলাদেশ সফরে এসে সিলেটের একটি মাদরাসার শতবর্ষপূর্তি উৎসবের পাশাপাশি আরও কিছু অনুষ্ঠানে অংশ নেয়ার কথা ছিল সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরীর। ২৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ সফরে এসে তার ভারতে ফেরার কথা ছিল ৩১ ডিসেম্বর।বাংলাদেশ সফরে আসার ভিসা না পাওয়ার এ ঘ’টনাকে অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক এবং নজিরবিহীন বলে মন্তব্য করেছে পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক দল জমিয়ত-ই-উলামা হিন্দ আগামী ২৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ সফরে আসার কথা ছিল পশ্চিমবঙ্গের এই মু’সলিম নেতার।

মমতা বন্দোপাধ্যায় স’রকারের মন্ত্রিসভার এই সদস্য দেশটির ইংরেজি দৈনিক ইন্ডিয়া ট্যুডেকে বলেছেন, এ সফরের জন্য আমাকে স্ব’রা’ষ্ট্র ম’ন্ত্রণালয় থেকে অনাপত্তিপত্র (এনওসি) দেয়া হয়েছিল। এমনকি মুখ্যমন্ত্রীও এই সফরের ব্যাপারে জানতেন। কিন্তু শেষ মুহূর্তে এসে আমাকে সফর বাতিল করতে হবে।ভারতীয় বার্তাসংস্থা এএনআইকে সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আমি প্রায় ১০ দিন আগে বাংলাদেশের ভিসার জন্য আবেদন করেছিলাম। আমার টিকিটও বুকড করা হয়েছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin