ইউএনও হত্যাচেষ্টা: গ্রেফতার দুই আসামি রিমান্ডে

সিটি নিউজ ডেস্ক::  দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা ওমর আলীর ওপর হামলার ঘটনায় গ্রেফতার দুই আসামি নবীরুল ও সান্টুর সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।  
শনিবার (৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধায় তাদের দিনাজপুর চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শিশির কুমার বসু পুলিশের করা আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
এর আগে, দুপুরে মামলাটি ঘোড়াঘাট থানা পুলিশের কাছ থেকে নিয়ে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।


ইউএনও ওয়াহিদা খানমের ভাইয়ের দায়ের করা মামলার নতুন তদন্ত কর্মকর্তা দিনাজপুর গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমাম জাফর গ্রেফতার ওই দুই আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক শুনানি শেষে দুই আসামির সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
ওসি ইমাম জাফর সাংবাদিকদের জানান, মামলাটি গুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় আমরা আসামিদের অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বিচারকের কাছে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিলাম। আদালত আসামিদের সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। মামলাটি আমরা গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি। এ ছাড়া মামলার প্রধান আসামি আসাদুল ইসলামকে এখনো আমাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়নি। আমাদের কাছে হস্তান্তর করা হলে তারও রিমান্ড চাইব।


মামলার প্রধান আসামি আসাদুল ইসলাম অসুস্থ হয়ে পড়লে শনিবার সকালে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যান। চিকিৎসা শেষে আসাদুলকে দিনাজপুর জেলা জজ কোর্টে হাজির কথা থাকলেও আদালত চলা পর্যন্ত তাকে নিয়ে আসা হয়নি।
এদিকে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা তদন্ত কার্যক্রম জেলা গোয়েন্দা পুলিশের হাতে স্থানান্তর করা হয়েছে। আগের তদন্তকারী কর্মকর্তা ছিলেন ঘোড়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) মমিনুল ইসলাম। তার বদলে দিনাজপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি ইমাম জাফরকে দায়িত্ব দেয়া হয়।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin