ফাতি-রামোস নৈপুণ্যে স্পেনের বড় জয়

সিটি নিউজ ডেস্ক:: উয়েফা নেশন্স লিগে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আনসু ফাতি ও সার্জিও রামোসের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ভর করে ইউক্রেনকে হারিয়েছে স্পেন। এই ম্যাচে স্পেনের হয়ে সবচেয়ে কম বয়সী খেলোয়াড় হিসেবে গোল করার রেকর্ড গড়েছেন আনসু ফাতি।

মাদ্রিদের আলফ্রেদো দি স্তেফানো স্টেডিয়ামে রোববার রাতে ‘এ’ লিগের ৪ নম্বর গ্রুপের ম্যাচে ৪-০ গোলে জিতেছে স্পেন। এবারের আসরের প্রথম ম্যাচে জার্মানির সঙ্গে ১-১ ড্র করলেও দ্বিতীয় ম্যাচেই জয়ের দেখা পেল লুইস এনরিকের দল।

ম্যাচের তৃতীয় মিনিটেই এগিয়ে যায় স্পেন। ক্রিভতসোভ ডি-বক্সে ফাতিকে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় স্পেন। সফল স্পট কিকে গোল করে দলকে এগিয়ে নেন রামোস। ২৯ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন স্পেন অধিনায়ক।

আর সবচেয়ে কম বয়সী (১৭ বছর ৩১১ দিন) খেলোয়াড় হিসেবে নেশন্স লিগে শুরুর একাদশে খেলতে নামা ফাতি ৩২ মিনিটে তার রেকর্ড গড়া গোলটি করেন। এর আগে চ্যাম্পিয়নস লিগ ও বার্সার জার্সিতে লা লিগায় ইতিহাসে সবচেয়ে কম বয়সে গোল করার রেকর্ডও ভেঙেছিলেন ফাতি।

ম্যাচে ২০ গজ দূর থেকে পাওয়া গোলটি আবার স্পেনের জার্সিতে একাদশে সুযোগ পাওয়ার পর তার প্রথম গোল। তাতে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় লুইস এনরিকের শিষ্যরা।

বিরতির পর ম্যাচের ৬২তম মিনিটে মরেনো বল জালে জড়ালেও অফসাইডের কারণে গোল হয়নি। ৮৪তম মিনিটে ডি-বক্সেই  বল পেয়ে যান মরেনোর বদলি নামা ফেররান তরেস। দারুণ শটে স্কোরলাইন ৪-০ করেন ম্যানচেস্টার সিটির এই ফরোয়ার্ড।

এদিকে, ডিফেন্ডার হয়েও স্পেনের জার্সিতে সর্বোচ্চ (২৩) গোলের মালিক এখন রামোস। তিনি কিংবদন্তি আলফ্রেদো দি স্তেফানোর রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছেন। পেনাল্টি থেকে গোল করার রেকর্ডেও নিজেকে অনন্য করে তুলেছেন রামোস। এই নিয়ে টানা সপ্তম ও দেশের হয়ে সর্বশেষ ১০ ম্যাচের ৮টিতেই পেনাল্টি থেকে গোল করলেন স্পেন অধিনায়ক।

দুই ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে স্পেন। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইউক্রেনের পয়েন্ট ৩। ২ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় জার্মানি। তলানিতে থাকা সুইজারল্যান্ডের ঝুলিতে রয়েছে ১ পয়েন্ট।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin