বাকেরগঞ্জ পাদ্রিশিবপুরের সাধারণ মানুষের আশ্রয়স্থল করোযোদ্ধা জাকারিয়া মিরাজ

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ ২০২১ সালের মার্চ মাসে সম্ভব্য ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে পরি”ছন্ন তরুন রাজনীতিবিদ ও বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এবং সমাজসেবক, করোনা যোদ্ধা, মানবিক জাকারিয়া সোয়েব মিরাজকে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় বাকেরগঞ্জের পাদ্রিশিবপুর ইউনিয়নের এলাকার সর্বস্থ’রের জনগণ। ইতি মধ্যেই জাকারিয়া সোয়েব মিরাজ, নোভেল করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ এর মহামারিতে তার নিজ উদ্যোগে বাকেরগঞ্জে উপজেলার পাদ্রিশিবপুর ইউনিয়নের সাধারণ মানুষের মধ্যে সতর্কতা মূলক প্রশিক্ষণ প্রদান ও স্বাস্থ্য উপকরন হ্যান্ড স্যানিটাইজার,মাস্ক সহ বিভিন্ন সহযোগীতা প্রদান করেন। এছাড়াও জাকারিয়া মিরাজ তার নিজ অর্থায়নে এলাকার অসংখ্য কর্মহীন পরিবারে মাঝে খাদ্য সামগ্রী উপহার দেন। অন্যদিকে এলাকার বিভিন্ন সংগঠন সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক ও মসজিদ-মাদ্রাসায় অর্থ সহায়তা দিয়ে আসছেন।

জানাগেছে, বাকেরগঞ্জ উপজেলার ১৩ নং পাদ্রিশিবপুর ইউনিয়নের নুরুল হক (রত্তন মাস্টার) এর ছোট ছেলে জাকারিয়া সোয়েব মিরাজ। ১৯৯০ সালে পড়াশুনার তাগিদে বাকেরগঞ্জ থেকে বরিশাল নগরীর বগুরা রোডে বসবাস করেন। ১৯৯১ সালে বরিশালে উদয়ন স্কুলে তৃতীয় শ্রেনীতে ভর্তি হন। ওই বিদ্যালয় স্কুল থেকে ২০০২ সালে বিজ্ঞান বিষয়ে সুনামের সাথে এসএসসি পাশ করেন। ২০০২ সালে সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজে মানবিক শাখায় পরাশুনা করে ২০০৬ সালে সুনামের সাথে এইচএসসি পাশ করেন। তারপর ২০০৬ সালে ওই কলেজেই ডিগ্রিতে ভর্তি হয়ে ২০১১ সালে পাশ করেন। বর্তমানে জাকারিয়া সোয়েব মিরাজ সরকারি বরিশাল “ল” কলেজে অধ্যায়নরত ।

স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, জাকারিয়া সোয়েব মিরাজ ২০০১ সাল হতে ছাত্র রাজনীতিতে পা রাখেন। সেখান থেকেই ছাত্রলীগের বিভিন্ন মিছিল, মিটিং ও আন্দলোন সংগ্রামের সাথে নিজেকে রাজনীতির সাথে যুক্ত রাখেন। ছাত্র রাজনীতিতে ২০০৪ সালে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের ১৫ নং ওয়ার্ডের ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করেন । পাশাপাশি ২০০৭ সালে সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের ছাত্রলীগের হাল ধরেন। তারপর ২০০৯ সাল হতে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের ১৫ নং ওয়ার্ডের ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। এরপর ২০১৩ সাল হতে বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছে। অপরদিকে, জাকারিয়া সোয়েব মিরাজ ছাত্র রাজনীতির পাশাপাশি বাংলাদেশ মানবধিকার কমিশন বরিশাল জেলা শাখার সদস্য ও বাকেরগঞ্জ উপজেলার মানবধিকার কমিশনের সাংগঠনিক সম্পাদক পদে কাজ করে আসছেন।

এছাড়াও বরিশালের বিভিন্ন পত্র-পত্রিকার উ”চপদে দায়িত্ব পালন করছেন। সকল সাংগঠনিক কাজে মিরাজ আহতসহ হামলা-মামলারও স্বীকার হন। এমন তরুন ও মেধাবী রাজনীতিবীদ মিরাজকে এবারের বাকেরগঞ্জ উপজেলার পাদ্রিশিবপুর ১৩নং ইউনিয়নের সর্ব¯’রের জনগণ চেয়ারম্যান পদে দেখতে চায় বলে জানিয়েছেন উক্ত এলাকার ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরাসহ এলাকার বিভিন্ন সংগঠন সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা। জাকারিয়া সোয়েব মিরাজের রক্তে মাংশে মিসে আছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। মিরাজ একজন রাজনীতিবিদ নয় সে একজন ভালো সংগঠকও বটে। আমাদের মনে হয়না এমন ত্যাগি নেতাদের নির্বাচনের মাঠে মুল্যায়ন করেন।

তারপরেও মাননীয় প্রধাণমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বলবো জাকারিয়ার মতন একজন তরুন ও মেধাবী পরি”ছন্ন রাজনীতিবিদরাই পারবে সরকারের সকল উন্নয়ন কাজে সহায়তা করতে। এমন তরুনদের সমাজসেবক হিসেবেই দেখতে চায় সাধারণ মানুষ। তরুন এই সমাজ সেবক জাকারিয়া মিরাজের ব্যাপারে স্থানীয় কৃষক মো: আবদুল জব্বার সাথে কথা বল্লে তিনি বলেন আমার বয়স এহন ৮০বছর প্রায় অনেক এই জীবনে অনের চেয়ারম্যান দেখছি তবে হ্যার(মিরাজের) মতো এতা ভালো মানুষ পাইনাই এই কয়দিন আগেও মোগো গ্রামের মানুষের মধ্যে মাছ ধারার চাই দিয়ে গেছে।

চেয়ারম্যান না হইয়াও সে অনেক সালিশ মিমাংশা করে ,মানুষ এতে উপকৃত হইছে। নির্বাচনের ব্যাপারে জাকারিয়া সোয়েব মিরাজ বলেন ছোট বেলা থেকেই রাজনীতির সাথে জরীত পাশাপশি মানুষের সেবায় নিজেকে সবসময় নিয়োজিত রেখেছি,এখন সাধারন মানুষ যদি চায় তাদের পাশে রাখবে আমিও তাদের পাশে থেকে সকল কর্যক্রমে নিজেকে উজাড় করে দিতেও পিছ পা হবো না। যত দিন বাচবো মানুষের সেবা করেই বাচতে চাই।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin