বৃহস্পতিবারে সন্তান, রোববারে স্ত্রী আজ চলে গেলেন শহিদুল

সিটি নিউজ ডেস্ক:: হাসিনা জাতীয় বা’র্ন অ্যা’ন্ড প্লা’স্টি’ক সার্জা’রি ইনস্টিটি’উটে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

সোমবার (০২ মা’র্চ) ভো’রে তিনি মা’রা’ যান বলে জানিয়েছেন হা’সপা’তা’লের সম’ন্বয়’কারী ড. সামন্ত লাল সেন। আর শহি’দুল মা’রা’ যাওয়ার মাধ্যমে ওই অ’গ্নি’কা’ণ্ডের ঘটনায় মৃ’তে’র সংখ্যা বেড়ে পাঁচ’জ’নে দাঁড়ালো।

গত বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) ভোর সা’ড়ে ৪টার দিকে নিউ ই’স্কাটনে’র দিলু রোডের একটি পাঁচ’ত’লা ভবনের গ্যা’রে’জে অ’গ্নি’কা’ণ্ডে’র ঘটনা ঘটে। অ’গ্নি’কা’র ঘটনায় তাদের শি’শু সন্তান রুশ’দিসহ তিনজনের মৃ’ত্যু’ হয়।

আ’গু’নে সে সময় শহি’দুল কি’রমা’নীর ৪৩ শতাংশ ও তার স্ত্রী’ রু’শদি’র মা জান্না’তুলের ৯৫ শতাংশ পু’ড়ে’ যায়। এরপর তারা হাসপাতা’লে চি’কিৎসা’ধীন ছিলেন।

চিকিৎসা’ধীন অব’স্থা’য় রোববার (০১ মা’র্চ) সকাল সা’ড়ে নয়’টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের (ঢামেক) শেখ হাসিনা জাতীয় বা’র্ন ‘অ্যান্ড প্লাস্টিক সা’র্জা’রি ইনস্টিটিউটে জা’ন্নাতু’লের মৃ’ত্যু’ হয়।

আর তার স্বা’মী’ নি’হ’ত রুশদির বাবা শহিদুল কির’মা’নীর শা’রীরি’ক অবস্থা আ’শ’ঙ্কাজ’নক হওয়া তাকে রোব’বার সকালে হাসপা’তা’লের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আই’সিইউ) পা’ঠানো হয়। সেখানে সো’মবার ভোরে তিনি মা’রা’ যান।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin