প্রধান শিক্ষক তানিয়া সুলতানার অ্যাম্বাসেডর হওয়ার গল্প’

রেদওয়ান রানা :: বরিশাল সিটি কর্পোরেশন,এলাকার ইন্দ্রকাঠী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।তিনি করোনা কালিন সময়ে এপ্রিল মাস থেকে অনলাইন এ ক্লাস শুরু করেন। তার ক্লাস দেখে অংশ গ্রহন করেন বরিশালের শিক্ষার্থী ফারিয়া তাসমিন সেতু,সাইয়্যেদাতুর রহমান তাঈশ, আফিয়া জাহিন প্রমুখ।

অনলাইন ক্লাস এর ব্যাপারে শির্ক্ষাথী সেতুর মা লাকি বেগম বলেন,তানিয়া ম্যাডাম এর ক্লাস দেখে আমার মেয়ের খুব উপকৃত হয়েছে।তিনি খুব-সুন্দর করে ক্লাস নেন, আমার মেয়ে ম্যাডাম’র ক্লাস খুব পছন্দ করেন।তাঈশ এর বাবা মো: সুলতান মাহমুদ জানায় এই করোন কালিন সময় সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ তার পরও তানিয়া ম্যাডাম নিজ উদ্যোগে থেকেই অনলাইন এ ক্লাস শুরু করেন,শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের কাছে ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হয়ে উঠেন তিনি, আমাদের বাচ্চরাও ভালো ভাবে নিয়েছে । এতে শিক্ষার্থীরা উপকৃত হচ্ছে। তিনি যেমন সঠিক ভাবে বিদ্যালয় পরিচালনা করছেন তেমনি করোনাকালিন সময়ে বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীদের খোজ খবর রেখেছেন তার মত প্রধান শিক্ষক পেয়ে আমরা গর্বিত।

ঢাকা মনিপুর স্কুল এ্যান্ড কলেজ এর শিক্ষার্থী রোদেশী আলম রোজা ও লিসা নিয়মিত অনলাইন ক্লাসে অংশ নিয়েছে । রোজার মা রুবিনা ইয়াসমিন প্রতিবেদককে বলেন-তানিয়া ম্যাডাম খুব সুন্দর কনটেন্ট দিয়ে ক্লাস নেন।তার উপস্হাপনাও খুব সুন্দর। আমার মেয়ে তার ক্লাস খুব পছন্দ করে।এবং খুব আগ্রহ নিয়ে তার ক্লাস দেখে। a2i কর্তৃক ICD4E জেলা শিক্ষক অ্যাম্বাসেডর হিসেবে মনোনীত হয়েছেন এই প্রধান শিক্ষক তানিয়া সুলতানা । জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস থেকে পরিচালিত Barishal District Online Primary Education School এবং Barishal Online School হচ্ছে বরিশাল মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা থেকে পরিচালিত।

এই স্কুলে শুধু অ্যাম্বাসেডর শিক্ষকরা ক্লাস নিয়ে থাকে। বরিশাল অনলাইন স্কুল, প্রাথমিক শিক্ষা পরিবারের অনলাইন ক্লাস এর মোট ৪টি স্কুলে ক্লাস নিয়ে থাকেন এই শিশু শিক্ষার কারিগর তানিয়া সুলতানা। সংসার জীবনেও বেশ সফল তিনি । তার স্বামী পেশায় শিক্ষক , এক ছেলে দুই মেয়ে নিয়ে বেশ সুখের সংসার তাদের, তার পরিবারের বটবৃক্ষ তার মা তিনিও আবসর নিয়েছেন এই শিক্ষককতা পেশা দিয়ে,মোট কথা হলো পরিবারের সবাই মানুষ গড়ার কারিগর।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin