বরিশালে প্রতারণা মামলা,নকল আইনজীবী করাগারে

সিটি নিউজ ডেস্ক::

বরিশালে প্রতারণার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় কানিজ জোহরা নামে এক ভুয়া আইনজীবীকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। রোববার (১৫ নভেম্বর) তাকে হাজির করা হলে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।

এর আগে শনিবার সন্ধ্যায় বরিশাল নগরীর পরেশ সাগর মাঠ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করেন কোতয়ালী মডেল থানার এসআই কুদ্দুস।
গত ২৫ সেপ্টেম্বর বরিশাল নগরীর সিএন্ডবি রোডের বাসিন্দা কানিজ জোহরার বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে থানায় মামলাটি দায়ের করেন রূপাতলী বসুন্ধরা হাউজিং এর বাসিন্দা নাসরিন আখতার।

মামলার এজাহারে নাসরিন আখতার বলেন, একবছর পূর্বে বরিশালগামী সুন্দরবন-১১ লঞ্চে আমাদের দুজনের মধ্যে পরিচয় হয়। এ সময় কানিজ জোহরা নিজেকে হাইকোর্টের আইনজীবী পরিচয় দিয়ে তার কোন বোন নেই জানিয়ে আমাকে বোন বলে সম্বোধন করে এবং মোবাইল নম্বর নিয়ে যায়। এরপর থেকে প্রায় সময় ফোনে যোগাযোগ রাখতো। একপর্যায়ে বরিশালে আমার বাসায় আশা যাওয়া শুরু করে এবং ব্যবসার প্রলোভন দেখায়। এরই মধ্যে আমার অগোচরে আমার নামের অগ্রণী ব্যাংকের একটি চেক নিয়ে যায় কানিজ (যার হিসাব নম্বর ০২০০০০৪০৪১৯৪৫, চেক নম্বর-০২৩৮৬৫৬)। ওই চেক ফেরত চাইলে সে জানায়- ব্যবসায়ীক চুক্তি হবে তাই ৪টি স্ট্যাম্পে আমার স্বাক্ষর লাগবে। পরে কানিজ আমার সন্তানদের ক্ষতি করার হুমকি দিয়ে বø্যাংক স্টাম্পে আমার স্বাক্ষর নেয়। পরে চেক ফেরত চাইলে বিভিন্ন মামলায় জড়ানোর হুমকি দেয়।

এদিকে, গত ৩ সেপ্টেম্বর একটি সিআর মামলায় জামিন করিয়ে দেয়ার কথা বলে আমার কাছ থেকে বিভিন্ন সময় ৭ লাখ টাকা নিয়ে যায়। কিন্তু ৭ সেপ্টেম্বর মামলার তারিখের দিন আদালতে না আসায় বুঝতে পারি সে আইনজীবী নয়। পরে জানতে পারি কানিজ আইনজীবী পরিচয় দানকারী প্রতারক এবং প্রতারক চক্রের সক্রিয় সদস্য। সে দেশের বিভিন্ন জায়গায় নিজেকে নিলয়, কোথাও কানিজ, কোথাও সুরমা, কোথাও রতনা, তমা পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। বিভিন্ন পুরুষদের সঙ্গে সু-সম্পর্ক তৈরি করে কৌশলে ডেকে বিবস্ত্র করে অর্থ দাবি করে, অন্যথায় সেসব ছবি ভাইরাল করার হুমকি দেয়। এরআগে ঢাকার আদালতে দায়ের করা একটি মামলায় কয়েকমাস জেল খাটে আইনজীবী পরিচয়দানকারী এই প্রতারক নারী।

আসামি কানিজ জোহরাকে গ্রেফতারকারী বরিশাল কোতয়ালী মডেল থানার এসআই কুদ্দুস বলেন, প্রতারণার অভিযোগে মামলা দায়ের করার পর শনিবার সন্ধ্যায় পরেশ সাগর মাঠ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর কানিজ জোহরা যে আইনজীবী নন, তা পুলিশের কাছে স্বীকার করেন ।
এ বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী জাহাঙ্গীর হোসাইন হোসাইন বলেন, কানিজ জোহরা কোন আইনজীবী নন, অথচ তিনি নিজেকে হাইকোর্টের আইনজীবী পরিচয় দিয়ে আসছিলেন। এভাবে প্রতারণা করে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন তিনি।

সুত্র বিসিএল নিউজ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin