উপ-পুলিশ কমিশনার জাহাঙ্গীর মল্লিককে বিদায়ী সংবর্ধনা দিলেন বিএমপি পুলিশ

সিটি নিউজ ডেস্ক:: বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম-বার’র সভাপতিত্বে আজ (২৮ ডিসেম্বর) সোমবার বিএমপি সদরদপ্তর সম্মেলন কক্ষ বিএমপি উপ-পুলিশ কমিশনার (নগর বিশেষ শাখা) মুহম্মদ জাহাঙ্গীর মল্লিককের বরগুনা জেলার পুলিশ সুপার হিসেবে বদলীজনিত বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। বদলীজনিত বিদায় অনুষ্ঠানে সহকর্মীদের বক্তব্যের মধ্য দিয়ে প্রকাশিত ভালোবাসায় সিক্ত হন বিদায়ী অতিথি। বিএমপি পুলিশ কমিশনার সহ বিভিন্ন বিভাগের সকল উপ-পুলিশ কমিশনার গণ ও সহকর্মীদের বক্তব্যে কর্মময় জীবনে বিদায়ী অতিথি একজন হৃদয় বান ও মানবিক গুণাবলী সম্পন্ন পেশাদার কর্মকর্তা হিসেবে আলোচিত হন।

সহকর্মীরা বিদায়ী অতিথির উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেন। এসময় পুলিশ কমিশনার বিএমপি মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম-বার বলেন, জাহাঙ্গির মল্লিক একজন মানবিক গুণাবলী সম্পন্ন হৃদয়বান মানুষ। সে খুব স্পষ্ট ভাসি। দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য, বিশেষ করে ভুক্তভোগীদের জন্য, সর্বোপরি সহকর্মীদের জন্য মঙ্গল করার তার ভিতরে রয়েছে এক অদম্য প্রচেষ্টা। আমার বিশ্বাস বরগুনা বাসি তার মতো একজন দক্ষ, মানবিক গুণাবলী সম্পন্ন পুলিশ সুপার পেয়ে ধন্য হবে। এসময় বিদায়ী অতিথি তার বক্তব্যে নিজের ব্যক্তিগত ও পেশাগত জীবনের বিভিন্ন বিষয়ে তুলে ধরে বলেন, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের পুলিশ কমিশনার’র অধীন কাজ করে তিনি যে অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন; বিশেষ করে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ধৈর্যধারণ, বুদ্ধিমত্তা, দেশপ্রেম, জনসম্পৃক্ততা, নেতৃত্ব-এগুলো সত্যি অতুলনীয়।

এজন্য তিনি পুলিশ কমিশনারকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। পাশাপাশি তিনি এগুলো তার ভবিষ্যৎ কর্ম জীবনে প্রয়োগ করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন। বিদায়ী অতিথি বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশে ৪ বছর ৮ মাস ২০ দিন যাবৎ কর্মরত ছিলেন। এসময় তিনি উপ-পুলিশ কমিশনার (নগর বিশেষ শাখা), উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর), উপ-পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা শাখা) ও পুনরায় উপ-পুলিশ কমিশনার (নগর বিশেষ শাখা) হিসেবে বিভিন্ন মেয়াদে দায়িত্ব পালন করেন। এসময়ে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে মাননীয় পুলিশ কমিশনার মহোদয় বিদায়ী অতিথিকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে তার হাতে সম্মাননা সূচক ক্রেস্ট ও উপহার সামগ্রী তুলে দেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন-সকল বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনারগণসহ, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন অফিসার এবং ফোর্সবৃন্দ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin