একজন চালককে ৮ ঘণ্টার বেশি ডিউটি করাবেন না: তথ্যমন্ত্রী

সিটি নিউজ ডেস্ক:: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ড্রাইভারদের একটানা ৮ ঘণ্টার বেশি গাড়ি না চালানোর আহ্বান জানিয়েছিলেন। সে কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘একজন চালককে দিয়ে ৮ ঘণ্টার বেশি ডিউটি করাবেন না। লম্বা ডিউটি করলে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। ড্রাইভারদেরও তো বিশ্রামের প্রয়োজন আছে।’

সোমবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ আওয়ামী মোটর চালক লীগ আয়োজিত এক স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক ব্যক্তিগত গাড়ি চালক এবং বাংলাদেশ আওয়ামী মোটর চালক লীগের সহ-সভাপতি মো. শাহজাহান মোল্লার স্মরণে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। শাহজাহান মোল্লা রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ৮ জানুয়ারি ইন্তেকাল করেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনা যেভাবে মানুষকে আপন করে নিতে পারেন, অন্য কেউ তা পারেন না। এখানেই অন্য নেত্রীর সাথে তার পার্থক্য। অনেক ক্ষেত্রে তিনি সাহেব সুলভ মানুষের থেকেও একজন ড্রাইভারকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন।  

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ২০১৪ সালের নির্বাচনের আগে বিএনপি জ্বালাও পোড়াও আন্দোলন করেছিল। আন্দোলনের মাধ্যমে অধিকার আদায়ের নামে নিরীহ ড্রাইভারদের জীবন্ত পুড়িয়ে মেরেছে। তারা সে সময়ে শতাধিক ড্রাইভারকে পুড়িয়ে মেরেছে। ঘুমন্ত ট্রাক ড্রাইভারকে পুড়িয়ে মেরেছে। তারা আসলে ড্রাইভারদের কোনো কল্যাণ করে নাই বরং তাদের হত্যা করেছে।

তথ্যমন্ত্রী অনুষ্ঠানে শাহজাহান মোল্লার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন। করোনার লক্ষণ দেখা দিলে সবাইকে দ্রুত পরীক্ষা করানোর আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, “শাহজাহান মোল্লা প্রথমে বুঝতে পারেনি যে, তার করোনা হয়েছে। সে কারণেই তার অকাল মৃত্যু হয়েছে। তাই আমি সবাইকে অনুরোধ করবো, করোনার লক্ষণ দেখা দিলে দেরি না করে পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে যাওয়া উচিত। ডাক্তারদের শরণাপন্ন হওয়া উচিত। দেরি হয়ে গেলে সমস্যা হতে পারে।

বাংলাদেশ মোটর চালক লীগের সভাপতি আলী হোসেনের সভাপতিত্বে স্মরণসভায় আওয়ামী লীগের উপদফতর সম্পাদক সায়েম খান, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সৈয়দ আবদুল আউয়াল শামীম প্রমুখ বক্তব্য দেন।

সূত্র: বাসস

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin