বাড়ির ছাদে অস্ত্রের কারখানা

সিটি নিউজ ডেস্ক: বন্দর নগরী চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানার বংশাল পাড়ায় গফুর খান সওদাগরের বাড়ির ছাদে একটি কক্ষে অস্ত্রের কারখানার সন্ধান পেয়েছে পুলিশ। সেখান থেকে দেশে তৈরি দুটি এলজি ও বিপুল পরিমাণ অস্ত্রসহ এক নারীকে গ্রেপ্তার করেছে নগরীর ডবলমুরিং থানা পুলিশ।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় পাঠানটুলির বংশাল পাড় এলাকায় এই কারখানার সন্ধান পাওয়া যায়।

গ্রেপ্তার নারীর নাম মেহেরুন নেছা মুক্তা (২৯)। নাম ছাড়া গ্রেপ্তার নারীর ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানায়নি পারেনি পুলিশ। পুলিশ বলছে, ওই কারখানায় বিভিন্ন ধরনের বন্দুক ও বন্দুকের গুলি তৈরি হতো। প্রাথমিক তদন্তে মনে হচ্ছে, অবৈধভাবে যেসব গুলি বিক্রি হতো। যে অস্ত্র উদ্ধার হয়েছে, সেগুলো এই কারখানার তৈরি। আরও কোনো কারখানা আছে কিনা সেটার তদন্ত করা হচ্ছে।

ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মহসীন বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে পাঠানটুলি থেকে গোলাগুলির শব্দ শোনা যায়। তখন গোলাগুলির শব্দ কোথায় থেকে হচ্ছে সেটার উৎস জানতে গিয়ে অস্ত্র তৈরির এই কারখানার খোঁজ মেলে।

এ সময় দুটি এলজি ও বিপুল পরিমাণ অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। অজ্ঞাতনামা আসামি করে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করেছে। এখন দেখতে হবে আরও অস্ত্র তৈরি কারখানা আছে কিনা সেটা। আর এই কারখানার সাথে কারা কারা কিংবা কোনো গোষ্ঠী জড়িত কিনা সেটা তদন্ত করা হচ্ছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin