ক্লাস-পরীক্ষা নিতে গিয়ে কেউ আক্রান্ত হলে দায় কে নেবে?

সিটি নিউজ ডেস্ক: মহামারি করোনাভাইরাসের উদ্ভূত এই পরিস্থিতে ক্লাস পরীক্ষা এগুলো করতে যেয়ে কেউ যদি আক্রান্ত হয়, তাহলে তার দায় দায়িত্ব কে নেবে?- সমালোচনাকারীদের উদ্দেশে এ প্রশ্ন ছুড়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার বেলা ১১টার দিকে এইচএসসির ফল প্রকাশ অনুষ্ঠানে তিনি এ প্রশ্ন ছুড়েন। এদিন গণভবন থেকে অনলাইনে সংযুক্ত হয়ে ফলাফলের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনার কারণে আমাদের শিক্ষার্থী, শিক্ষক অন্যান্য কর্মচারীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেদিকে লক্ষ্য রেখে এই ব্যবস্থাগুলো আমরা নিতে বাধ্য হয়েছি। অনেকেই সমালোচনা করেন। কিন্তু ক্লাস পরীক্ষা এগুলো করতে যেয়ে কেউ যদি আক্রান্ত হয়। তাহলে তার দায় দায়িত্ব কে নেবে? যারা সমালোচনা করেন এই পদ্ধতিতে রেজাল্ট দেওয়ার কারণে তারা নেবেন দায়িত্ব?

তিনি বলেন, অনেকে অনেক কথা বলছেন। তবে আমি মনে করি, অপ্রয়োজনীয় মন্তব্য বা তিক্ততার কথা না বলাই ভালো।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এমনিতেই তারা (শিক্ষার্থীরা) স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে পারছে, যা তাদের জীবনে একটি বড় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে। এই পরিস্থিতিতে তাদের ফলাফল এবং এর পদ্ধতি নিয়ে অনেকে নেতিবাচক মন্তব্য করছেন যা শিক্ষার্থীদের ওপর মানসিক চাপ তৈরি করবে।

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা না নেওয়ার বিষয়ে সমর্থন জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, শিক্ষার্থী, শিক্ষক এবং অন্যান্য কর্মচারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্যই সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। অনেকেই সংবেদনশীল নানা কথা বলছেন। তবে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হলে তখন যদি কেউ সংক্রমিত হতেন, তাহলে সেই দায় কে নিত? যারা ফলাফল তৈরির নতুন পদ্ধতির সমালোচনা করছেন তারা দায়িত্ব নিতেন?- এ প্রশ্ন রাখের প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, পরীক্ষা নেওয়ার সময় কেউ করোনায় আক্রান্ত হলে সমালোচকরা তখন সরকারের বিরুদ্ধে নতুন সমালোচনা শুরু করতেন। এটি আমাদের জন্য অত্যন্ত আক্ষেপের বিষয় যে আপনি কিছু করতে গেলেই সেখানে কিছু মানুষ থাকবে যারা সেখানে যে কোনোভাবেই হোক ত্রুটি খুঁজে পাবেন, তবে তারা এই সমালোচনার ফলাফল সম্পর্কে কখনই ভাবেন না।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin