ছেলেকে ‘পেটাচ্ছে’ দেখে বাবার মৃত্যু

সিটি নিউজ ডেস্ক: চাঁদপুরের কচুয়ায় গ্রাম্য সালিসে ছেলেকে পেটাতে দেখে নিবশ্যা সরকার (৬০) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শুক্রবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার ৯ নম্বর কড়ইয়া ইউনিয়নের বাসাবাড়িয়া গ্রামের সরকার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করেছে।

স্থানীয়রা জানায়, নিবশ্যার তিন ছেলে দিলীপ সরকার, রিপন সরকার ও নয়ন সরকার। দিলীপ ও রিপন বাবার ভরণ-পোষণ না দেওয়ায় তার সকল সম্পত্তি নয়ন সরকারকে লিখে দেওয়া হয়। এ নিয়ে দিলীপ ও রিপন সালিস ডাকেন। গতকাল রাতে স্থানীয় মেম্বার মানিক মিয়া ও কয়েকজন ব্যক্তি সালিসে বসেন। বৈঠকের একপর্যায়ে নয়নকে অভিযুক্ত করে মেম্বারসহ কয়েকজন বেধড়ক পেটানো শুরু করেন। নয়নকে পেটাতে দেখেই বৃদ্ধ বাবা অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে দ্রুত তাকে কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে স্থানীয় মেম্বর মানিক মিয়া বলেন, ‘নিবশ্যা সরকার সকল সম্পত্তি দুই সন্তানকে না দিয়ে এক ছেলেকেই লিখে দেন। এ কারণে শুক্রবার বিষয়টি সমাধানের জন্য সালিস ডাকা হয়। সালিসে নয়নকে জিজ্ঞাসাবাদ করার সময় বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। আর তা দেখেই হঠাৎ তার বাবা অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।’ তবে নয়নকে মারধর করা হয়নি বলে তিনি জানান।

স্থানীয় চেয়ারম্যান আহসান হাবিব জুয়েল বলেন, ‘আমি বিষয়টি শুনেছি। তবে বিষয়টি ভালোভাবে জেনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।’

নিবশ্যা সরকারের ছেলে দিলীপ সরকার জানায়, বৈঠক চলাকালে একটু হট্টগোল হয়। ঠিক সেই সময়ই বাবা স্ট্রোক করেন। আর এতেই তার মৃত্যু হয়।’

এ ব্যাপারে কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহিউদ্দীন জানান, খবর পেয়ে আমরা লাশ উদ্ধার করে আজ শনিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ অভিযোগ করেনি। বরং অভিযোগ নেই বলেও মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে। কেউ অভিযোগ করলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin