সবজি ক্ষেতে গর্ত খুঁড়ে মুক্তিযুদ্ধে ব্যবহৃত ৫ মর্টারশেল উদ্ধার

সিটি নিউজ ডেস্ক:: গাজীপুর মহানগরের গাছা থানায় একটি সবজি ক্ষেতে গর্ত খুঁড়তে গিয়ে মাটির নিচ থেকে মুক্তিযুদ্ধে ব্যবহৃত ৫টি অকেজো মর্টারশেলসহ কিছু যন্ত্রাংশ পান কৃষকরা। পরে পুলিশ এসে মর্টারশেলগুলো উদ্ধার করে।

গাজীপুর মহানগরের গাছা থানায় একটি সবজি ক্ষেতে গর্ত খুঁড়তে গিয়ে মাটির নিচ থেকে মুক্তিযুদ্ধে ব্যবহৃত ৫টি অকেজো মর্টারশেলসহ কিছু যন্ত্রাংশ পান কৃষকরা। পরে পুলিশ এসে মর্টারশেলগুলো উদ্ধার করে।

শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে গাছা থানার শরিফপুর এলাকায় এসব মর্টারশেল উদ্ধার করা হয়। স্থানীয় উৎসুক জনতা এগুলো একনজর দেখার জন্য সেখানে ভিড় জমান।

গাছা থানার এসআই সাফায়েত ওসমান জানান, শরিফপুরের জনৈক সানাউল্লাহ মণ্ডলের সবজি ক্ষেতে গর্ত করার সময় কৃষি শ্রমিকরা মাটির নিচে গ্রেনেডগুলো পান। পরে থানায় খবর দেওয়া হলে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তিনি সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে গিয়ে গ্রেনেডগুলো উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। গ্রেনেডগুলোতে মরিচার স্তর পড়ে গেছে এবং এগুলোর সঙ্গে কিছু ভাঙা যন্ত্রাংশও পাওয়া গেছে বলে তিনি জানান।

এ ব্যাপারে জিএমপির গাছা থানার ওসি মো. ইসমাইল হোসেন বলেন, গ্রেনেডগুলোর ব্যাপারে আমরা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে যোগাযোগ করছি।

গাজীপুরের বীর মুক্তিযোদ্ধা হাসান উদ্দিন সরকার জানান, শরিফপুর এলাকায় সর্বশেষ ১৪ মার্চ ঐতিহাসিক ছয়দানা মালেকের বাড়ির মাঠে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর সঙ্গে তাদের সম্মুখযুদ্ধ হয়। সেদিন হানাদার বাহিনীর ক্যাপ্টেন নঈমকে তিনি গুলি করে ধরাশায়ী করেছিলেন এবং ক্যাপ্টেন নঈমের ছোড়া মর্টারশেলের আঘাত থেকে অল্পের জন্য তিনি প্রাণে রক্ষা পান। সম্ভবত সেই যুদ্ধেই এসব অস্ত্র ব্যবহৃত হয়েছিল।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin