হাসপাতাল থেকে নিখোঁজ নির্যাতনের শিকার শিশু গৃহকর্মী

সিটি নিউজ ডেস্ক: বরিশালের উজিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হওয়া নির্যাতনের শিকার শিশু গৃহকর্মী নিপা বাড়ৈর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।

এ ঘটনায় শুক্রবার হাসপাতালের মেডিক্যাল অফিসার শামসুদ্দোহা তাওহিদ উজিরপুর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

উজিরপুরের উত্তর জামবাড়ি এলাকা থেকে বুধবার রাতে নিপাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছিল পুলিশ।

শিশুটি তখন পুলিশকে জানিয়েছিল, ঢাকায় জাতীয় পঙ্গু হাসপাতালের চিকিৎসক সিএইচ রবিনের বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করত সে। ছয় মাস আগে ওই বাসায় যাওয়ার পর থেকে রবিনের স্ত্রী রাখি দাশ তাকে নির্যাতন করে আসছিলেন।

সে আরও জানায়, গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে বুধবার অন্য এক জন তাকে গ্রামের বাড়ির এলাকায় নিয়ে আসে। তাকে রেখেই ওই লোক পালিয়ে যান।

ডা. শামসুদ্দোহা জানান, বৃহস্পতিবার রাত ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত চাচা পরিচয়ে এক ব্যক্তি নিপাকে হাসপাতাল থেকে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। শিশুটির শারীরিক অবস্থা ভালো না থাকায় এবং বিষয়টি স্পর্শকাতর হওয়ায় পুলিশকে না জানিয়ে তাকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ছাড়পত্র দিতে রাজি হয়নি। শুক্রবার ভোর ৫টার পর নিপা ও তার সঙ্গে থাকা বড় মা পরিচয়দানকারী নারীকে আর দেখা যায়নি।

শিশুটির পাশের বেডের রোগীরা জানিয়েছেন, সারারাত ওই শিশুটির সঙ্গে থাকা ব্যক্তিদের মোবাইল ফোনে অনেক কল আসে। তারা সারারাত সজাগই ছিলেন।

উজিরপুর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল আহসান জানান, শিশুটিকে খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।

বরিশাল জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মারুফ হোসেন জানান, তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন জানিয়েছেন, শিশুটির গ্রামের বাড়ি এলাকার তপন বাড়ৈ শিশুটিকে হাসপাতাল থেকে নিয়ে যান।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin