বরিশালে হাত পা-বাঁধা লাশের পরিচয় মিলেছে

সিটি নিউজ ডেস্ক: চরমোনাই ইউনিয়নের বিশ্বাসের হাট এলাকায় ব্রিজের ঢাল থেকে লুঙ্গি-পাঞ্জাবি দিয়ে হাত পা-বাঁধা ও পলিথিন দিয়ে মুখ-মাথা মোড়ানো অবস্থায় যুবকের লাশ উদ্ধার করেন পুলিশ। পুলিশের ধারণা বুলবুলকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। খবর পেয়ে বুলবুলের স্বজনরা সোমবার রাতে লাশ আনতে বরিশাল কোতোয়ালী থানায় গেছেন। জানাযায়, মৃত বুলবুল ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার ঘাগড়া গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল কুদ্দুস শেখের ছেলে বুলবুল আহমেদ।

তিনি স্থানীয় সোনামিয়ার বাজারে টেইলার্স ব্যবসায়ী ছিলেন। স্বজনদের সূত্রে জানা যায়, গত ২৩ ফেব্রুয়ারি গফরগাঁওয়ের শতাধিক লোকের কাফেলার সঙ্গে বুলবুল চরমোনাই পীরের মাহফিলে গিয়ে গত শনিবার নিখোঁজ হন। নিহতের ভাতিজা শাহিন বলেন, আমাদের জানা মতে চাচার কোনো শত্রু ছিল না। কারা তাকে হত্যা করেছে জানি না। তবে আমরা হত্যাকাণ্ডের সঠিক বিচার চাই। তিনি আরো বলেন, কয়েকদিন যাবৎ মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন।

যাওয়ার সময় আমরা না করেছিলাম। কিন্তু তিনি বলেছেন সুস্থ্য আছেন যেতে পারবেন। উল্লেখ্য, বুলবুল আহমেদ (৩৫) নামে এক ব্যবসায়ীর লাশ বরিশাল সদর উপজেলার চরমোনাই এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।উল্লেখ্য গত রবিবার বেলা ১১টায় লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে পুলিশ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin