বরকে পেছনে বসিয়ে নতুন বউ নিজেই স্কুটি চালিয়ে চলল শ্বশুরবাড়ি

সিটি নিউজ ডেস্ক: পরনে লাল-হলুদ বিয়ের বেনারসি। মাথা ভর্তি সিঁদুর। হাতে শাখা, পলা। গা ভর্তি সোনার গয়না। মাথায় বাঁধা রয়েছে শোলার মুকুটও। দেখলেই বোঝা যাচ্ছে যে, সদ্য বিয়ে হয়েছে যুবতীর। এই সাজেই স্কুটিতে সওয়ার যুবতী। চালকের আসনে তিনি। আর  বাসি বিয়ের (Marriage) পর বরকে পেছনে বসিয়ে নতুন বউ নিজেই স্কুটি (Scooty) চালিয়ে রওনা দিলেন শ্বশুরবাড়ির উদ্দেশে।

শুনতে বা ভাবতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ইতিমধ্য়েই ভাইরাল (Viral) এই ভিডিয়ো। এমনই অভিনব ঘটনার সাক্ষী থাকল শিলিগুড়ির (Siliguri) মানুষ।

এই দেখতে রাস্তায় বেরিয়ে পড়ে আট থেকে আশি সকলেই। জানা গিয়েছে, নববধূ সুদেষ্ণার বাড়ি শিলিগুড়িতে। বাসি বিয়ের পর সেখান থেকেই স্কুটিতে বরকে চাপিয়ে আপার বরকে পেছনে বসিয়ে বাগডোগরায় শ্বশুরবাড়ির উদ্দেশে রওনা দেন তিনি। বর-বউয়ের এই অভিনব কীর্তি ক্যামেরাবন্দি করেছেন সুদেষ্ণার দাদা সৌত্রিক বসু।

সবাই যখন তাঁর এমন কীর্তিতে বাহবা দিচ্ছে, তখন নতুন বউ সুদেষ্ণা সরকার বলেন, স্কুটি চালানো তাঁর প্যাশন। তিনি আগাগোড়া স্কুটি (Scooty) চালাতে ভালোবাসেন।

আগেই ভেবে রেখেছিলেন যে নিজে’র জীবনের এই গুরুত্ব পূর্ণ দিনটিকে আরও বেশি করে আনন্দমুখর করে তুলতে এমনটাই করবেন তিনি। আর ঠিক তাই করেছেন।

পেশায় ব্যবসায়ী সুদেষ্ণার বর কৃষ্ণদেব জানান, সম্বন্ধ করেই বিয়ে ঠিক হয়। বিয়ের আগেই নিজের ইচ্ছের কথা জানিয়েছিল সুদেষ্ণা। আমিও রাজি হয়ে যাই। সেইমত বাসি বিয়ে (Marriage) শেষ হতেই বিয়ের সাজে বেরিয়ে পড়ি। গোটা বিষয়টা যে এতটা উপভোগ করব, সত্যি-ই ভাবিনি।

অপরদিকে সুদেষ্ণার দাদা সৌত্রিক বসু বলেন, বোন স্কুটি চালাতে ভালবাসে। তাই আমরা কেউ ওর ইচ্ছেতে বাধা দিইনি। এমনকি শ্বশুরবাড়ি থেকেও কোনও বাধা দেয়নি। বরং সকলেই বিষয়টি খুবই মজার ছলে নিয়েছেন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin