নগরীর পোশাক শো-রুম টপ টেনে লুট, গ্রেপ্তার ৫

সিটি নিউজ ডেস্ক: বরিশাল নগরীর বিবির পুকুর পাড়ের ডাঃ ইমন আলি কমপ্লেক্স মার্কেটের অভিযাত ডিপার্টমেন্টাল টপটেন শোরুমে প্রকাশ্যে লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসময় তাদেরকে বাঁধা দিতে গেলে শোরুমের একাধিক কর্মচারীকে মারধর করা হয়। এসময় হামলাকারীদের সাথে ধস্তাধস্তীতে প্রতিষ্ঠানের অন্তত ৫জন স্টাফ আহত হয়। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে পালানোর সময় ৫ জনকে হাতেনাতে আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ করেছে ওই প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

রোববার (৭ মার্চ) সন্ধ্যা সোয়া ৬ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে- রোববার সন্ধ্যা সোয়া ৬ টার দিকে নগরীর বিবিরপুর পাড় টপ টেন শোরুমের কর্মচারীরা বেচাকেনায় ব্যস্ত সময় পাড় করছিলেন। অচমকা ৫০- ৬০ জনের একটি দল শোরুমে প্রবেশ করে বিভিন্ন রুমে ঢুকে জামা কাপর দেখতে থাকে। হঠাত তারা শোরুমের মধ্যে হট্রগোল শুরু করে জামা-কাপড়, জুতা, ঘড়িসহ যে যার মতো করে হাতে নিয়ে দৌড় দেয়। এসময় তাদেরকে বাঁধা দিতে গেলে শোরুমের একাধিক কর্মচারীকে মারধর করা হয়। এরপর শোরুম কর্তৃপক্ষ ৯৯৯ এ কল করলে পরিস্থিতি বেগতিক দেখে হামলাকারীরা পালানোর চেষ্টা করলে ৫ জনকে হাতেনাতে আটক করে কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশে সোপর্দ করেছে ওই প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

আটককৃতরা হলো- বরিশাল সরকারী বিএম কলেজের ইতিহাস বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী রাকিব, নোহান, শাহাদাৎ, সজিব ও শুভ্র।

এদিকে আটককৃতরা উপস্থিত সংবাদকর্মীদের জানান, আমরা এই লুটপাটের ঘটনার সাথে নয়। কারা এমন করেছে তাও জানিনা। আমরা কেনাকাটার জন্য এখানে এসেছিলাম। উল্টো আমাদের মারধর নগদ টাকা, মোবাইল ফোন নিয়ে গেছে শোরুমের লোকজন। আমরা এর সুষ্ঠু বিচারের দাবী জানাই।’

টপটেন শো-রুমের ইনচার্জ মিরাজ হোসেন বলেন, হঠাৎ ৫০ থেকে ৬০ জনের একদল ক্রেতা তাদের শোরুমে প্রবেশ করে বিদেশী ঘড়ি থেকে শুরু করে বিভিন্ন রুম থেকে দামী দামী পণ্য নিতে থাকে। এক পর্যায়ে তাদের মালের বিল কে দেবে জানতে চাইলে তারা দ্রুত পালানোর চেষ্টা করলে আমরা ৫ জনকে ধরতে সক্ষম হই। এসময় আমাদের বেশ কয়েকজন স্টাফ আহত হয়।

এ বিষয়ে বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগ সভাপতি জসিম উদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কে বা কারা এ কাজ করেছে আমি জানি না। এমনকি হামলাকারীদের মধ্যে কাউকে চিনিও না। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে শো-রুমে হামলা ও লুঠপাটকারীদের কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানাই।’

এ ব্যাপারে কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশের এসআই মেহেদী বলেন, খরব পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ৫ জনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রকৃয়াধীন রয়েছে।’

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin