দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলার সুপারিশ

সিটি নিউজ ডেস্ক: বরিশাল সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ফেসবুক পেজ হ্যাক করায় দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়েরের সুপারিশ করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে অধ্যক্ষ মো. রুহুল আমিন জানান, পলিটেকনিট ইনস্টিটিউট থেকে মামলার সুপারিশ বিগত ৩১ মার্চ মহাপরিচালক বরাবর পাঠানো হয়েছে। তবে মামলার অনুমতি এখনো পাইনি।

জানা গেছে, ২৫ মার্চ সকালে বাংলাদেশ পলিটেকনিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কম্পিউটার সাইন্স বিভাগের শিক্ষক শাকিল আল মাসুমের সাথে ধাক্কা লাগে ওই সংগঠনের সভাপতি ওয়ার্কশপ সুপার রেজাউল বাহারের। এ নিয়ে প্রথমে দুজনের বাগবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে রেজাউল বাহার শাকিল আল মাসুমকে লাঞ্ছিত করেন।

ঘটনাস্থলে রেজাউল বাহারের পক্ষ নিয়ে লাঞ্ছিত শাকিল আল মাসুমের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন সিভিল বিভাগের ইনস্ট্রাক্টর কামরুজ্জামান। ঘটনার পর অন্যান্য শিক্ষকরা অধ্যক্ষ প্রকৌশলী রুহুল আমিনের কাছে অভিযোগ দিলে তিনি ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন।

বরিশাল সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের রেজিস্ট্রার মামুন অর রশিদ জানান, উদ্বুদ্ধ পরিস্থিতি নিয়ে শিক্ষকদের মাঝে বিভক্তির সৃষ্টি হয়। ফলে মহাপরিচালক স্যারকে জানান অধ্যক্ষ স্যার।

২৭ মার্চ ডাইরেক্টর অব টেকনিক্যাল এডুকেশন (ডিটিই) কর্তৃপক্ষ অভিযুক্ত দুইজনকে তাৎক্ষণিক বদলির আদেশ দেন। এর মধ্যে রেজাউল বাহারকে ফেনী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে এবং কামরুজ্জামানকে সিলেট পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে বদলি করা হয়। তবে বদলি হওয়া দুই শিক্ষককে আমরা ক্যাম্পাসে না পেয়ে বদলির আদেশ তাদের মেইলে পাঠানো হয়।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সিভিল বিভাগের ওয়ার্কশপ সুপার রেজাউল বাহার পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের অনলাইন ক্লাস পরিচালনার জন্য Barishal poly OCP নামের ফেসবুক পেজটি হ্যাক করে এডমিন থেকে অধ্যক্ষকে বাদ দিয়ে নিজেই ফেসবুক পেজের নিয়ন্ত্রণ নেন। পরবর্তীতে পেজের নাম পরিবর্তন করে Online class Page নাম দিয়ে প্রশাসনসহ বিভিন্ন শিক্ষক কর্মচারীদের নাম এডিট করে অসত্য ও কুরুচিপূর্ণ অডিও-ভিডিও আপলোড করেন। এতে শিক্ষক-কর্মচারীদের চারটি সংগঠন অধ্যক্ষের সাথে বৈঠক করে পুনরায় মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) ওই দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার সুপারিশ করেন। 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin