বরিশালে সেমাই কারখানাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে জেলা প্রশাসনের অভিযান

সিটি নিউজ ডেস্ক: বরিশালে স্বাস্থ্য বিধি অমান্য করায় ৪ ব্যক্তিকে ৮০০ টাকা এবং অন্যান্য আইন ভঙ্গ করার অপরাধে ৪ ব্যবসায়ীকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে করোনার প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় জেলা প্রশাসন বরিশালের নিয়মিত মোবাইল কোর্ট অভিযানের অংশ হিসবে বরিশালের বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জসীম উদ্দীন হায়দার এর নির্দেশনায় এবং অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট গৌতম বাড়ৈ এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে জেলা প্রশাসন বরিশালের পক্ষ থেকে সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন, লকডাউন কার্যকর করা এবং বাজার মনিটরিং এর অংশ হিসবে মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) বাকেরগঞ্জ তরিকুল ইসলাম, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট এস এম রাহাতুল ইসলাম ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট অংমাচিং মারমা। বাকেরগঞ্জ উপজেলার সদর রোড এলাকায় মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালনা করেন।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) বাকেরগঞ্জ তরিকুল ইসলাম। এ সময় সংক্রামক রোগ প্রতিকার প্রতিরোধ ও নির্মুল আইন ২০১৮ মোতাবেক ১ জনকে ২০০ টাকা এবং করাত কল লাইসেন্স বিধিমালা ২০১২ অনুযায়ী ১ ব্যবসায়ীকে ১০,০০০ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। এসময় মাস্ক পরার জন্য সকল পথচারীদের আহবান করা হয় এবং যারা মাস্ক বিহীনদের উপজেলা প্রশাসন বাকেরগঞ্জ এর পক্ষ থেকে মাস্ক বিতরণ করা হয়। অভিযানে বাকেরগঞ্জ থানা পুলিশের একটি টিম সহযোগিতা করেন। এদিকে সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন, লকডাউন কার্যকর করার পাশাপাশি বাজার মনিটরিং এর উদ্দেশ্যে বরিশাল মহানগরের ফকির বাড়ি সংলগ্ন বগুড়া রোড এলাকায় এবং বটতলা বাজার এলাকায় মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযান পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসন বরিশালের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট এস এম রাহাতুল ইসলাম।

এসময় অভিযান চালিয়ে মেসার্স টাটা ফুড প্রোডাক্টস নামক একটি সেমাই প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের কারখানায় অধিক বার ব্যবহারিত তেল এবং ডালডা ব্যবহার করার পাশাপাশি উৎসব ও চমক ব্রান্ডের সেমাই এর অনুকূলে মোড়ক জাত করার সনদ না-থাকায় এবং বৈধ ভেরিফিকেশন সনদ ছাড়া ওজন যন্ত্র ব্যবহার করার অপরাধে ওজন ও পরিমাপ মানদণ্ড আইন, ২০১৮ এর ২৪(১) ও ৩২(১) লংঘন করায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এবং অধিক বার ব্যবহারিত তেল এবং ডালডা ধ্বংস করা হয়। একই সময় বটতলা বাজার এলাকায় হাট সুপার শপে অভিযান চালিয়ে নিম্নমানের ফুট কালার বিক্রি করা, দধি পণ্যের অনুকূলে মোড়কজাতকরা সনদ না থাকায় এবং দধির মান ঠিক না থাকায়।

একইসাথে বৈধ ভেরিফিকেশন সনদ ছাড়াই ৫ টি ওজন যন্ত্র ব্যবহার করার অপরাধে এইক আইনে হাট সুপার শপ কে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এসময় দধি এবং ফুট কালার ধ্বংস করা হয়। এ সময় বিএসটিআই বরিশালের একটি টিম সহযোগিতা করেন।আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় সহযোগিতা করেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের একটি টিম। সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন, লকডাউন কার্যকর করা এবং বাজার মনিটরিং এর উদ্দেশ্যে মহানগরের নথুল্লাবাদ, নবগ্রাম রোড এলাকায় মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযান পরিচালনায় ছিলেন জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট অংমাচিং মারমা। এ সময় স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করায় ৩জন ব্যক্তিকে মোট ৬০০ টাকা জরিমানা করে তাৎক্ষণিক আদায় করা হয়। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সহায়তা করেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের একটি টিম। অভিযান শেষে বিজ্ঞ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট বৃন্দ জানান, জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin