বরিশাল মেরিন একাডেমিসহ বিভিন্ন অবকাঠামো ও জলযান উদ্ধোধন করেন প্রধানমন্ত্রী

সিটি নিউজ ডেস্ক : দেশের সকল নৌযানের রেজিস্ট্রেশন থাকাসহ আইনকানুন মেনে পরিচালনা করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এবং সবাইকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘সবচেয়ে দুঃখজনক আমাদের যারা এ নৌযানগুলো চালান বা পরিচালনা করেন বা যারা ব্যবসা করেন। যাত্রীদের সুরক্ষা যেমন তাদের দেখতে হবে আবার যাত্রীদেরও নিজেদের সুরক্ষার কথা চিন্তা করতে হবে। আজ বৃহস্পতিবার (৬ মে) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিভিন্ন সংস্থার অবকাঠামো ও শতাধিক জলযান উদ্বোধনকালে এ নির্দেশ দেন তিনি। নৌযানে যাতায়াতকারী ও পরিচালনাকারী সবাইকে সতর্ক থাকার অনুরোধ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন- ‘যে একটা নৌযানে কতজন মানুষ উঠতে পারে, চড়তে পারে, ঠেলাঠেলি করে সব একসঙ্গে উঠতে গিয়ে তারপর একটা অ্যাকসিডেন্ট হবে আর নিজেদের জীবনটা চলে যাবে। এ ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে, সজাগ থাকতে হবে। ’ শেখ হাসিনা বলেন, ‘সেই সঙ্গে তাড়াহুড়ো করে যেতে গিয়ে যখন একটা দুর্ঘটনা ঘটে, যে মানুষগুলোর জীবন চলে যায়, আর যারা আপনজন হারিয়ে বেঁচে থাকে তাদের কষ্টের কথাটা একবার আপনারা চিন্তা করবেন। কাজেই এটুকু ধৈর্য ধরতে হবে। যেকোনো একটা বিপদ এলে ধৈর্য ধরতে হবে, সবর করতে হবে। সেই সবরটা সবারই করা উচিত এবং নিয়মগুলো মেনে চলবেন। ‘ ‘একটা কথা আমি একটু বলবো, আমাদের দেশ ৬ ঋতুর দেশ। কাজেই প্রতি দুই মাস পর পর ঋতু পরিবর্তন হয়। যেমন এখন কাল বৈশাখীর সময়, যখনই যারা চলাচল করবেন একটু সাবধানে চলাচল করবেন। ‘ সব নৌযানের রেজিস্ট্রেশন নিশ্চিত করা প্রসঙ্গে সরকারপ্রধান বলেন, ‘তাছাড়া আমাদের যেসব নৌযান চলাচল করে আমি মনে করি প্রত্যেকটারই রেজিস্ট্রেশনের সিস্টেম থাকা উচিত। রেজিস্ট্রেশন না থাকার কারণে অনেক সময় কে কার কি, ক্ষতিপূরণের কি ব্যবস্থা সেগুলো করা যায় না। ’ নৌযান চালকসহ সংশ্লিষ্টদের উন্নত প্রশিক্ষণের ওপর গুরুত্বারোপ করে সরকারপ্রধান বলেন, ‘উপযুক্ত প্রশিক্ষণ দিয়ে এ জলযান যদি আমরা পরিচালনা করতে পারি তাহলে কিন্তু অ্যাকসিডেন্ট কমে যাবে। সেদিকে সবাইকে দৃষ্টি দেওয়ার জন্য আমি অনুরোধ জানাবো। ‘ প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) ২০টি কাটার সাকশন ড্রেজার, ৮৩টি ড্রেজার সহায়ক জলযান, প্রশিক্ষণ জাহাজ ‘টিএস ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী (দাদা ভাই)’, বিশেষ পরিদর্শন জাহাজ ‘পরিদর্শী’, নবনির্মিত নারায়ণগঞ্জ ড্রেজার বেজ, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ কর্পোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) দু’টি উপকূলীয় যাত্রীবাহী জাহাজ ‘এমভি তাজউদ্দীন আহমদ’ এবং ‘এমভি আইভি রহমান’, পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের ‘পায়রা আবাসন’ পুনর্বাসন কেন্দ্র এলাকায় ভূমি অধিগ্রহণের ফলে ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে ৫০০ পাকা বাড়ি বিতরণ এবং পাবনা, বরিশাল, রংপুর ও সিলেট মেরিন একাডেমি উদ্বোধন করেন। এদিকে উদ্বোধনী অনুস্ঠানে বাংলাদেশ মেরিন একাডেমি বরিশাল প্রান্তে যুক্ত ছিলেন সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ, বরিশাল বিশ্ব বিদ‌্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড.সাদেকুল আরেফিন,ক্যাপ্টেন কমডর আতিকুর রহমান,বরিশাল শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান প্রফেসর মো: ইউনুস,বিএম কলেজ অধ্যক্ষ সহ সংস্লিষ্ট কর্মকর্তা। প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধোধন শেষে মেরিন একাডেমি বরিশালের নাম ফলক উন্মচন করেন মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ পরে অতিথিদের নিয়ে ক্যম্পাসে বৃক্ষরোপন করেন তিনি।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin