নগরী যানজট মুক্ত রাখতে এ,কে স্কুল মাঠে পার্কিং ব্যবস্থা নিশ্চিত করেছে বিএমপি ট্রাফিক বিভাগ

সিটি নিউজ ডেস্ক: বরিশাল নগরীকে যানজট মুক্ত রাখতে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ ট্রাফিক বিভাগ।বিএমপি কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম বার এর নির্দেশ ও উপ-পুলিশ কমিশনার ( ডিসি ট্রাফিক ) মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার পিপিএ সেবা’র নেতৃত্বে কাজ করছে ট্রাফিক বিভাগের প্রতিটি সদস্য।

যে কোন ধরনের ধর্মীয় অনুষ্ঠান যেমন ,ঈদুল ফিতর,ঈ আযহা, দূর্গাপুজা,বড় দিন, ১লা বৈশাখসহ বিভিন্ন সময় মানুষের মাঝে উৎস মুখর পরিবেশ বিরাজ করে।পাশাপাশি কেনাকাটা করার অতিরিক্ত একটা চাহিদা দেখা দেয়।

এ বছর আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষেও মানুষের মাঝে উৎসব মুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। তবে করোনার প্রকোপ বৃদ্ধির কারণে দেশের অন্যান্য জেলায় কর্মরত বরিশালের মানুষ আসতে না পারলেও মার্কেট ও শপিংমলগুলোতে ক্রেতাদের উপস্থিত লক্ষ করা গেছে । নগরীর গীর্জামহল্লা, কাঠপট্টির রোড, ফলপট্টি, সদর রোডে সাধারণ মানুষের উপচে পড়া ভীড় লক্ষ করা গেছে।

আগত ক্রেতাসাধারণের ভোগান্তি দূর করতে এ বছর ভিন্নধর্মী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে ট্রাফিক বিভাগ। যানবাহন নিয়ে কেনাকাটা করতে আসা ক্রেতাদের গাড়িগুলোর জন্য নির্দিষ্ট স্থানে পার্কিং ব্যবস্থা নিশ্চিত করেছে বিএমপি ট্রাফিক বিভাগ ।

ডিসি ট্রাফিক মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার পিপিএম সেবা’র আন্তরিক প্রচেষ্টা ও বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের সার্বিক সহযোগিতায় গীর্জা মহল্লার আছমত আলী খান স্কুল (এ,কে) মাঠে গাড়ি পার্কিং করার জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এর ফলে মানুষ যানজট নামক ভোগান্তি থেকে কিছুটা হলেও মুক্তি পাবে।

মার্কেটে আগত জনসাধারণকে নির্দিষ্ট স্থানে গাড়ি পার্কিং করার জন্য হান্ড মাইক দিয়ে প্রচারনা করে যাচ্ছে ট্রাফিক বিভাগ। সরেজমিনে গীর্জা মহল্লা এলাকায় গিয়ে দেখা যায় যানজট মুক্ত রাখতে জনসচেতনতা মূলক প্রচারনা করছে পুলিশ সদস্যরা।

সুনির্দিষ্ট স্থানে গাড়ি রাখার জন্য সবাইকে অনুরোধ করছে টিআই মোঃ আঃ রহীম, টিআই মোঃ রুহুল আমিন সোহেল, সার্জেন্ট আবু বক্কর সিদ্দিক, সার্জেন্ট মোঃ সাদ্দাম হোসেনসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা।এছাড়াও হান্ড মাইক দিয়ে সচেতনতা মূলক প্রচারনা করে যাচ্ছে ট্রাফিক পুলিশ সদস্য মোঃ রুহুল আমিন।

এ বিষয় ডিসি ট্রাফিক মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার পিপিএম সেবা বরিশাল নিউজ24 কে বলেন, আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বরিশাল নগরীর সড়কগুলো যানজট মুক্ত রাখতে বিএমপি কমিশনার জনাব মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম বার মহোদয় এর নির্দেশে আমরা কাজ করছি। এরই ধারাবাহিকতায় গুরুত্বপূর্ণ সড়ক হিসেবে পরিচিত গীর্জা মহল্লা এলাকায় ভোগান্তি দূর করতে সিটি কর্পোরেশনে সহযোগীতায় এ,কে স্কুল মাঠে পার্কিং ব্যবস্থা নিশ্চিত করেছি। আশা করি সবাই আমাদের নির্ধারিত স্থানে গাড়িগুলো পার্কি করলে শতভাগ না হলেও নগরীর ৮০-৯০ ভাগ যানজট নিরসন সম্ভব হবে।

তিনি আরও বলেন,, সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক কর্মচারী ও সম্মানিত ক্রেতা সাধারণের প্রতি আমাদের অনুরোধ থাকবে সবাই স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলুন। নগরবাসীর প্রতি অনুরোধ জরুরি প্রয়োজন না হলে ঘরের বাইরে যাবেন।সরকারি নির্দেশ পালন করে আমাদের সহযোগীতা করুন। মহামারী করোনা প্রতিরোধে যতদূর সম্ভব জনসমাগম এড়িয়ে চলুন।নিজে নিরাপদ থাকুন দেশকে নিরাপদ রাখুন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin