পরিবারের অমতে বিয়ে দেওয়ায় তরুণীর আত্মহত্যা

সিটি নিউজ ডেস্ক: ৬ মাস আগে নিজের অমতে বিয়ে হয় বরিশালের বাকেরগঞ্জের রুমা আক্তারের (১৯)। ঈদের পর তাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার কথা। এ খবরে বাবা-মার সঙ্গে অভিমান করে বিয়ের ৬ মাসের মাথায় বাবার ঘরেই আড়ার সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। রোববার (১০ মে) রাত সাড়ে ৮টার দিকে সবার অগোচরে ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন।

নিহতর নাম রুমা আক্তার মধ্যনিয়ামতি চৌদ্দঘর এলাকার মো. জাকির হাওলাদারের মেয়ে। তিনি নিয়ামতি ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী ছিলেন।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ৬ মাস আগে একই ইউনিয়নের মো. সুমন হাওলাদারের সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। ঈদের পরের দিন শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাকে তুলে নেওয়ার কথা ছিল।

তবে তার এক নিকটাত্মীয় জানান, শুরু থেকেই বিয়েতে মত ছিল না তার। শ্বশুরবাড়িতে তুলে নিয়ে যাওয়ার খবরে বাবা-মায়ের ওপর অভিমান করে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে।

বাকেরগঞ্জ থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আমির হোসেন জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তবে প্রাথমিক ধারণা বিয়েতে মতো না থাকায় তুলে নেওয়ার আগেই আত্মহত্যা করছেন।’

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin