বরিশাল শেবাচিমে চিকিৎসকদের অবহেলায় প্রসূতি ও নবজাতকের মৃত্যু

সিটি নিউজ ডেস্ক: বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসকদের অবহেলায় প্রসূতি ও নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার রাত ১টার দিকে হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে (ওটি) সিজারিয়ান করার সময় এ ঘটনা ঘটে।

মৃত ওই প্রসূতির নাম নুপুর আক্তার। তিনি শহরের নথুল্লাবাদ সংলগ্ন লুৎফর রহমান সড়কের বাসিন্দা শামিম হাওলাদারের স্ত্রী।

শামিম হাওলাদার বলেন, ‘আমার স্ত্রী (নুপুর) অসুস্থ্য হয়ে পড়লে শুক্রবার তাকে হাসপাতালের প্রসূতি ওয়ার্ডে ভর্তি করি। প্রসূতি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নুপুর গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। এ সময় একাধিকবার কর্তব্যরত চিকিৎসকদের কাছে গেলেও তারা তাড়িয়ে দেয়। হঠাৎ রাতে নুপুরকে ওটিতে নেওয়া হয়। আধা ঘন্টা পরে ওটি থেকে জানানো হয় নুপুর ও তার সন্তান মারা গেছে। এ সময় আমি ও আমার পরিবার কান্নায় ভেঙে পড়ি।’এদিকে মৃত নুপুর ও তার সন্তানকে শনিবার সকালে কবরস্থ করা হয়।

তবে বিষয়টি নিয়ে কথা হলে গাইনী বিভাগের প্রধান ডাঃ খুরশীদ জাহান বলেন, ‘রোগী আসার পরে সে সুস্থ্য ছিল। কিন্তু এ্যাবডোমেন পেইন বেড়ে গেলে দ্রুত তাকে ওটিতে নিয়ে সিজারিয়ান করা হয়। আর ডাক্তারের অবহেলায় রোগী মারা যায় এটা স্বজনতের কমন ডায়ালগ।’

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin