ববি শিক্ষার্থীকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে মানববন্ধন

সিটি নিউজ ডেস্ক: সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা – ভিত্তিহীন অভিযোগ করার প্রতিবাদে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) সম্মুখে মানববন্ধন করেছে সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা। এসময় অভিযুক্ত ববি’র শিক্ষার্থী শাহবাজ মিঞা শোভনকে ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন তারা।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের ২০১৪-১৫ সেশনের শিক্ষার্থী শাহবাজ মিঞা শোভন দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত।

গত মার্চে সে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপর এক শিক্ষার্থীর মেসে গভীর রাতে হামলার ঘটনায় দোষী হিসেবে অভিযুক্ত।

সেই ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে যে অভিযোগ দায়ের হয়েছে সেটির সাক্ষী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী ও স্থানীয় সাংবাদিক শফিক মুন্সি।

এছাড়া গত ৬ই জুন দৈনিক মানবজমিন পত্রিকায় শাহবাজ মিঞা শোভনের বিরুদ্ধে একটি সংবাদ পরিবেশন করা হয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জালিয়াতি বিষয় নিয়ে ক্যাম্পাসের একটি সামাজিক সংগঠন কর্তৃক অভিযোগের ভিত্তিতে নিউজটি করা হয়।

যেখানে শোভনের যথাযথ বক্তব্য নেয় পত্রিকাটির বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি খাইরুল ইসলাম সোহাগ৷

এসব কারণে ক্ষিপ্ত হয়ে ও প্রতিহিংসার অংশ হিসেবে বিভিন্ন মাধ্যমে শফিক মুন্সি ও খাইরুল ইসলাম সোহাগের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক মিথ্যাচার ও মানহানিকর বক্তব্য দিয়ে আসছে শাহবাজ মিঞা শোভন।

তাঁর এমন আচরণ বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য যেমন অপমানকর তেমনি দুজন সাংবাদিককে বিনা কারণে হেনস্তার শামিল।

মানববন্ধন শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দেয় শিক্ষার্থীরা। স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, অনতিবিলম্বে শোভন কর্তৃক দায়েরকৃত অভিযোগটি খারিজ করতে হবে, সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দেওয়ায় দ্রুত শাহবাজ মিঞা শোভনকে ক্ষমা চাইতে হবে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের অপর এক শিক্ষার্থীর মেসে হামলার ঘটনায় শোভনের বিরুদ্ধে চলমান বিচারকাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে হবে।

মানববন্ধনে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের যুগ্ন আহবায়ক কাজি হাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী শাহরিয়ার আহমেদ মিলান, বাংলা বিভাগের আল আমিন, সয়েল সাইন্স বিভাগের সিয়াম জামান, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী শফিক মুন্সি সহ অন্যান্যরা।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin