বরিশালে করোনা শনাক্ত ২০৮, উপসর্গসহ মৃত্যু ৯

সিটি নিউজ ডেস্ক ‍॥ বরিশাল বিভাগে প্রতিনিয়ত বাড়ছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। সর্বশেষ বিগত ২৪ ঘণ্টায় গোটা বরিশাল বিভাগে নতুন করে ২০৮ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে।

এর আগের দিন ২৪ ঘণ্টায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছিলো ১৯৩। আর সর্বশেষ আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ে বিভাগে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৭ হাজার ৬০০ জন।

এছাড়া একই সময়ে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসাপাতালের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে ৭ জনের এবং পটুয়াখালী ও বরগুনা জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা নিয়ে গোটা বরিশাল বিভাগে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৩০৫ জনে গিয়ে দাঁড়িয়েছে বলে জানিয়েছেন বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস জানান, মোট আক্রান্ত ১৭ হাজার ৬০০ জনের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৫ হাজার ২৭ জন।

আক্রান্ত সংখ্যায় বরিশাল জেলায় নতুন শনাক্ত ৮৫ জন নিয়ে মোট ৭ হাজার ৭৯৩ জন, পটুয়াখালী জেলায় নতুন ৯ জন নিয়ে  মোট ২৪৬৫ জন, ভোলা জেলায় নতুন ৫ জন সহ মোট ২০৫২ জন, পিরোজপুর জেলায় নতুন ৫৩ জন নিয়ে মোট ২১৯৫ জন, বরগুনা জেলায় নতুন ৩ জন নিয়ে মোট আক্রান্ত ১৪১৩ জন এবং ঝালকাঠি জেলায় নতুন ৫৩ জন শনাক্ত হওয়ায় মোট সংখ্যা দাড়িয়েছে ১৬৮২ জন।

এদিকে শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালকের দপ্তর সূত্রে জানাগেছে, গত ২৪ ঘন্টায় শুধুমাত্র বরিশাল শের ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসাপাতালের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে ৭ জনের এবং করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা নিয়ে শুধুমাত্র শেবাচিম হাসপাতালেই করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২০৬ জন এবং আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে ৫২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করা ৫২৭ জনের মধ্যে ৩১ জনের কোভিড টেষ্টের রিপোর্ট এখনো হাতে পাওয়া যায়নি।

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পরিচালকের তথ্য সংরক্ষক জাকারিয়া খান স্বপন জানিয়েছেন, বিগত ২৪ ঘন্টায় (বুধবার) সকাল পর্যন্ত শেবাচিমের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে ২৮ জন ও করোনা ওয়ার্ডে ৫ জন ভর্তি হয়েছেন। উপসর্গ নিয়ে আইসোলেশনে ভর্তি সাতজন মৃত্যুবরণ করেন। করোনা ও আইসোলেশন ওয়ার্ডে এখন ১৪২ জন রোগী চিকিৎসাধীন আছেন। যাদের মধ্যে ৩৩ জনের করোনা পজেটিভ এবং ১০৯ জন আইসোলেশনে রয়েছে। আরটি পিসিআর ল্যাবে মোট ১৯০ জন করোনা পরীক্ষা করান। যারমধ্যে ৪৫ দশমিক ২৬ শতাংশ পজিটিভ শনাক্তের হার।

প্রসঙ্গত, বরিশাল বিভাগে সর্ব প্রথম ২০২০ সালের ৯ মার্চ পটুয়াখালী জেলার দশমিনা উপজেলায় করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। তবে, শনাক্ত ও মৃত্যুর হাড়ে সবার শীর্ষে রয়েছে বরিশাল জেলা।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin