চেক‌পো‌স্টে ক‌রোনা রোগীকে অক্সিমিটার দি‌লেন ম্যাজিস্ট্রেট

সিটি নিউজ ডেস্ক ‍॥ লকডাউন শুরু হওয়ায় স্ত্রী-সন্তানকে আগেই বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছিলেন ব্যাংক কর্মকর্তা মেহেদী হাসান। পরে করোনার উপসর্গ দেখা দেওয়ায় নমুনা পরীক্ষা করেন তিনি। জানতে পারেন করোনা পজিটিভ। কিন্তু বাসায় কোনো স্বজন না থাকায় অক্সিমিটার কিনতে পারছিলেন না। অবশেষে নিজেই মোটরসাইকেল নিয়ে বেরিয়ে পড়েন। রাস্তায় চেকপোস্টে আটকে পড়ে জানান তিনি করোনা পজিটিভ। শেষে দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিজের গাড়ি পাঠিয়ে তাকে অক্সিমিটার কিনে দেন। 

শুক্রবার (০২ জুলাই) দুপুরে বরিশাল নগরীর নথুল্লাবাদে এ ঘটনা ঘটেছে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিট্রেট মুশফিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, করোনা আক্রান্ত মেহেদী হাসান রূপালী ব্যাংকের সাগরদি শাখায় কর্মরত।

নির্বাহী ম্যাজিট্রেট মুশফিকুর রহমান বলেন, নথুল্লাবাদে অভিযান চলাকালে মোটরসাইকেল আরোহী ব্যাংক কর্মকর্তা মেহেদী হাসানকে থামিয়ে ঘরের বাইরে বের হওয়ার উদ্দেশ্য জানতে চাইলে তিনি করোনা পজিটিভের কথা বলেন। তখন তাকে সেখানে রেখেই আমি আমার গাড়ি পাঠিয়ে তার প্রয়োজনীয় অক্সিমিটার কিনে এনে দেই। এছাড়া তাকে আমার ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বর দিয়ে দেওয়া হয়েছে। পরবর্তীতে যে কোনো সময় যাতে তিনি প্রয়োজনীয় সহায়তার জন্য জানাতে পারেন। এছাড়া তাকে ৩৩৩ নম্বরে কল করার জন্য বলা হয়েছে। 

তিনি বলেন, জেলা প্রশাসন থেকে বাংক কর্মকর্তা মেহেদী হাসানকে সর্বাত্মক সহায়তা করা হবে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin