বানারীপাড়ার শিশু শাহ জালালের পাশে রেঞ্জ ডিআইজি

বরিশাল, বানারীপাড়া প্রতিনিধি : সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি মানবিক পোষ্ট দেখে চিকিৎসা সহায়তার হাত বাড়িয়েছেন বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি এসএম আক্তারুজ্জামান। ডিআইজি তার আর্থিক সহায়তা দিয়ে ওই থানা পুলিশের সহযোগিতায় শিশু পুত্রের সু-চিকিৎসাসহ ওষুধ ক্রয় করতে পেরেছেন অসহায় দিনমজুর পিতা আল আমিন আকন। ঘটনাটি বরিশাল জেলার বানারীপাড়া উপজেলার সৈয়দকাঠি ইউনিয়নের করপাড়া গ্রামে। আল আমিন আকন জানান, ১২ জুলাই সকালে তার তিন বছরের শিশু পুত্র শাহ জালাল পা পিছলে পরে পায়ের গোড়ালি ভেঙ্গে যায়। এ অবস্থায় তার (শিশু পুত্র) চিকিৎসার জন্য বানারীপাড়া উপজেলা হাসপাতালে আনার পর প্রথমে কর্তব্যরত চিকিৎসকের পরামর্শে ২৫০ টাকা দিয়ে এক্সরে করা হয়। পরে চিকিৎসক শিশুর ভাঙ্গা পা ব্যান্ডেজ করার জন্যই সাতশ’ টাকা দাবি করেন।

আলামিন আরও জানান, কঠোর লকডাউনের কারণে তিনি কর্মহীন হয়ে পরায় তার পক্ষে এ টাকা দেওয়া অসম্ভব হয়ে পরে। পুরো ঘটনাটি জানার পর স্থানীয় এক সংবাদকর্মী ঘটনার বিবরণ দিয়ে ফেসবুকে একটি পোষ্ট করেন। বিষয়টি বরিশালের চৌকস রেঞ্জ ডিআইজি এসএম আক্তারুজ্জামানের নজরে আসে। তিনি শিশুটির চিকিৎসার প্রয়োজনীয় অর্থ পাঠিয়ে দিয়ে বানারীপাড়া থানার ওসি হেলাল উদ্দিনকে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন।

তাৎক্ষনিক ওসি হাসপাতালে পৌঁছে শিশু শাহ জালালের চিকিৎসার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করেন। পরবর্তীতে চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্রে লেখা ওষুধও ডিআইজি’র পাঠানো অর্থে ক্রয় করে দেয়া হয়। পুলিশ কর্মকর্তার এ মহতী উদ্যোগকে বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার মানুষ সাধুবাদ জানিয়েছেন। রেঞ্জ ডিআইজি সহ বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন শিশু শাহ জালালের দিনমজুর অসহায় পিতা আলামিন আকন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin