রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের শিকার ইউপি চেয়ারম্যান খোকন

সিটি নিউজ ডেস্ক:: আসন্ন ইউনিয় পরিষদ নির্বচনকে সামনে রেখে হাইব্রিড নেতার গভীর ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন ১নং রায়পাশা-কড়াপুর ইউনিয়নের জনপ্রিয় চেয়ারম্যান মোঃ হাবিবুর রহমান খোকন। তার বিরুদ্ধে একাধিকবার বিভিন্ন ধরনের ষড়যন্ত্র করেছে স্থানীয় কতিপয় হাইব্রিড নেতা নামে পরিচিত কয়েকজন। দু’নয়ন জুড়ে যার উন্নয়নের স্বপ্ন, মানুষের উপকার করা যার নেশা, নিজের সবটুকু বিলিয়ে দিয়ে যে আনন্দ পায় সেই মানবতার ফেরিওয়ালা চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমানের বিরুদ্ধে সামান্য চাল কম দেয়ার অপবাদ যেন নিছক তামাসা বলে উড়িয়ে দিয়েছেন স্বর্বস্তরের জনগন।

সূত্রে জানা যায়, আসন্ন ঈদুল আজাহা উপলক্ষে গত সোমাবার হতদরিদ্রদের মাঝে দশ কেজি করে চাল বিতারন করেন চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান খোকন। সেটি নিয়ে ষড়যন্ত্রকারীরা একটি ইউটিউব চ্যানেলে মিথ্যা বানোয়াট তথ্য প্রকাশ করে।

এ বিষয়ে চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান খোকন বলেন, আমি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা আমার বিরুদ্ধে নানান অপপ্রচার চালিয়ে আসছে। এই ভিডিও চিত্রটি তারই একটি অংশ। তিনি আরো বলেন, আমি ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিব। আপনারা এলাকায় খোঁজ-খবর নিলে জানতে পারবেন যে, আমি জনগণের জন্য কতটা পরিশ্রম করি এবং এলাকার উন্নয়নে যথাযথ কাজ করে আসছি। তাই জনগণ ষড়যন্ত্রকারীদের আগামি নির্বাচনে ভোটের মাধ্যমে জবাব দিবে বলেও জানান চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান খোকন।

এদিকে স্থানীয় দোকানী আনোয়ার হোসেন বলেন, খোকন চেয়্যারম্যানের কাছ থেকে আমরা কখনো খালি হাতে ফিরে আসি নাই। কড়াপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বলেন, খোকন চেয়ারম্যান একজন অত্যন্ত সৎ মানুষ। তিনি একজন সম্ভ্রান্ত পরিবারের সন্তান। তিনি সবসময় মানুষকে দু’হাতে দান করেন। তিনি নিজের অর্থ থেকে চাল কিনে প্রধানমন্ত্রীর নামে দান করেন।

বিধবা পাখি বেগম বলেন, আমার স্বামীর মৃত্যুর পর থেকে খোকন চেয়ারম্যান আমাদের সকল বিপদ আপদে পাশে ছিলেন। এ বিষয় স্থানীয় মসজিদের ইমাম বলেন, আমাদের সকল ধর্মীয় অনুষ্ঠানে দানের সব থেকে বড় অংশ দেন খোকন চেয়ারম্যান। তিনি থাকেন সবার আগে। এছাড়াও তিনি গোপনে দান করা খুব পছন্দ করেন।

এদিকে প্রায় প্রতিটি ইউনিয়নেই হাইব্রিড নেতাদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ প্রকৃত আ’লীগ নেতারা। এর ব্যতিক্রম নয় রায়পাশা কড়াপুর ইউনিয়ন। এ সকল হাইব্রিড নেতারা আ’লীগকে ব্যবহার করে নিজেদের আখের গোছাতে মরিয়া হয়ে আছেন। যার ফলে ধ্বংসের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে আ’লীগ রাজনীতি। এমনকি তারা নিজেদের স্বার্থের জন্য প্রকৃত আ’লীগ নেতাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হচ্ছে। যার জ্বলন্ত প্রমাণ জনপ্রিয় চেয়ারম্যান রহমান খোকন। তার বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর সহয়তার চাল কম দেয়ার মিথ্যা অভিযোগ উঠিয়েছে।

এ বিষয়ে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মুনিবুর রহমান বলেন, কোন চেয়ারম্যানেরই চাল কম দেয়ার সুযোগ নেই। এরপরেও বিষয়টি আমি খতিয়ে দেখবো।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin