বরিশালের করোনায় ১৬ মৃত্যু, আক্রান্ত ৬৮৫

সিটি নিউজ ডেস্ক ‍॥ বরিশাল বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় তিন হাসপাতালে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে উপসর্গ নিয়ে ১১ জন এবং করোনায় পাঁচজন মারা গেছেন। এ সময়ে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ৬৮৫ জন। আরটিপিসিআর ল্যাবে শনাক্তের হার ৩১ দশমিক ৪১ শতাংশ।

রোববার (০১ আগস্ট) বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক ও শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালকের কার্যালয় থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস জানান, জেলাভিত্তিক করোনা সংক্রমণ তথ্যে দেখা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি শনাক্ত হয়েছে বরিশাল জেলায় ২৫৩ জন। এ পর্যন্ত এই জেলায় আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ১৪ হাজার ১৩৩ জন। সুস্থ হয়েছেন ৭ হাজার ৬৩০ জন। ২৪ ঘণ্টায় দুজনের মৃত্যু নিয়ে মোট মারা গেছে ১৫৮ জন।

পটুয়াখালী জেলায় নতুন শনাক্ত হয়েছে ১৩৭ জন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৪১৭ জন। ২৪ ঘণ্টায় একজনের মৃত্যু নিয়ে মোট মারা গেছেন ৮২ জন। সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৬৬৩ জন।

ভোলায় নতুন ৮৭ জন শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত হলেন ৩ হাজার ৯০৪ জন। ২৪ ঘণ্টায় একজনের মৃত্যু নিয়ে মোট মারা গেছেন ৩৪ জন। সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৪৪৪ জন।

পিরোজপুরে নতুন ৪৫ জন শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৩৭২ জন। ২৪ ঘণ্টায় কারো মৃত্যু না হলেও মোট মারা গেছেন ৭২ জন। সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৭১২ জন।

বরগুনায় নতুন ৮৬ জন শনাক্ত নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৯৪৩ জন। ২৪ ঘণ্টায় একজনের মৃত্যু নিয়ে মোট মারা গেছেন ৬৭ জন। সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৭০২ জন।
ঝালকাঠি জেলায় নতুন ৭৭ জন শনাক্ত নিয়ে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৬০ জন। ২৪ ঘণ্টায় কারো মৃত্যু না হলেও মোট মারা গেছেন ৬১ জন। সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৯৯০ জন।

মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ১১ জন উপসর্গ নিয়ে এবং তিনজন করোনা রোগী শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে মৃত্যুবরণ করেন। এ ছাড়া পটুয়াখালী হাসপাতালে একজন, বরগুনা হাসপাতালে একজন করোনা রোগী মৃত্যুবরণ করেছেন।

শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালকের তথ্য সংরক্ষক জাকারিয়া খান স্বপন জানান, বিগত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের আইসোলেশনে ৩৫ জন ভর্তি হন। এর মধ্যে উপসর্গ নিয়ে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালে ৩৫৩ জন চিকিৎসাধীন রোগী আছেন। যার মধ্যে ১৪৭ জনের করোনা পজিটিভ, ২০৬ জন আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ২৪ ঘণ্টায় ২২৬ জনের নমুনা আরটিপিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা করানো হয়েছে। এর মধ্যে ৭১ জন পজিটিভ ও ১১৫ জন নেগেটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

প্রসঙ্গত, এর আগের ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হয়েছিল ১৪ জনের। আরটিপিসিআর ল্যাবে শনাক্তের হার ছিল ৫৬ দশমিক ২১ শতাংশ। এ সময়ে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ৩২২ জন।

বরিশাল বিভাগের পটুয়াখালী জেলার দশমিনা উপজেলায় ২০২০ সালের ৯ মার্চ প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। সেই থেকে রোববার (০১ আগস্ট) সকাল ৮টা পর্যন্ত বিভাগের ছয় জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছে ৩৩ হাজার ৮২৯ জন। আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪৭৪ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১৯ হাজার ১৪১ জন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin