২৬ দিনের সন্তান রেখে করোনায় শিক্ষিকার মৃত্যু

সিটি নিউজ ডেস্ক ‍॥ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলায় করোনাভাইরাসে তাহমিনা আক্তার ডলি (২৯) নামে এক শিক্ষিকা মারা গেছেন। শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

উপজেলার কুলিকুন্ডা দক্ষিণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছিলেন তাহমিনা আক্তার। তিনি কুলিকুন্ডা গ্রামের মশিউর রহমানের স্ত্রী। তাদের দুইটি ছেলে সন্তান রয়েছে। ছোট ছেলের বয়স ২৬ দিন।

মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে কুলিকুন্ডা দক্ষিণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উম্মে সালমা জানান, ২০১২ সালের ৪ সেপ্টেম্বর কুলিকুন্ডা দক্ষিণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হিসেবে যোগ দেন তাহমিনা।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত ৮ আগস্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়ার একটি হাসপাতালে সিজারিয়ান অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ছেলে সন্তানের জন্ম দেন তাহমিনা আক্তার। এরপর ১৩ আগস্ট তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।

পরবর্তীতে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট বাড়ায় করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। রিপোর্টে করোনা পজিটিভি আসে। পরে তাকে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি স্ট্রোক করেন। পরে গতকাল রাতে মৃত্যু হয়।

আজ শনিবার সকাল ১০টায় কুলিকুন্ডা দক্ষিণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়েছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin