বরিশালে লোকালয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে ক্ষুদার্ত দুইটি হনুমান

বরিশাল শহরে বেশ কিছুদিন ধরে বাড়ির ছাদে, ঘরের চালে,গাছের ডালে, দোকানসহ লোকালয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে দুইটি কালো মুখো হনুমান। আজ শুক্রবার বেলা ১২ টার দিকে নগরের জেলখানার মোড়ে দেখা মিলছে ক্ষুদার্ত হনুমান দুইটির। খাদ্য ও নিজের নিরাপত্তায় জন্য একস্থান থেকে আরেকস্থানে দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে।

অবশেষে হনুমান দুইটি হাঁপিয়ে গিয়ে নিজেকে নিরাপদ মনে করে আশ্রয় নিচ্ছে নগরের জেল খানার মসজিদের ছাদসহ বিভিন্ন এলাকায়। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বেশকিছুদিন ধরে বরিশাল শহরসহ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে দেখা মিলছে ক্ষুদার্ত দুইটি হনুমানের।

হঠাৎ করেই লোকালয়ে আসা হনুমানটির লাফ-ঝাঁপ দেখতে উৎসুক জনতা ভিড় জমালে, প্রাণের ভয়ে লাফালাফি করে নিজের স্থান পরিবর্তন করছে সে। খাবার ও নিরাপদ স্থানের খোঁজে অবশেষে হনুমানটি আশ্রয় নিয়েছে বরিশাল শহরে।

শুক্রবার শহরের জেলখানার মোড় একটি বিরানী হাউজের সামনে লোকালয়ে নেমে খাবার খেতে দেখা গেছে ক্ষুদার্ত হলুমাটির। অন্যদিকে জেলখানার দেয়ালের উপর বসে কলা খেতে দেখা গেছে অন্য হলুমানটির। কিছু উৎসুক জনতার নানাপ্রকার খাবারও দিচ্ছে তাদের। খিদে পেলে ওয়ালের বা উচু স্থান থেকে নিচে নেমে খাবার সন্ধানে আশপাশে ঘুরে এসে আবারো উঠে যাচ্ছে সুবিধা মত ওপরে।

বরিশালের সাংবাদিক আরিফ হোসেন জানান, প্রায় ২ বছর আগে বরিশাল শহরে কাচামালের একটি ট্রাকে করে প্রথম একটি হলুমান আসে বরিশালে। বেশ কিছু দিন শহরের ঘোরা ফেরা করতেও দেখাও গিয়েছিলো।

তার পর হঠাৎ হলুমানটি শহর ত্যাগ করে কোথাও যেন চলে যায়। কিন্তু কিছু দিন পূর্বে বরিশাল জেলার বানারীপাড়া পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলরের বাড়ির পারিবারিক কবরস্থানের ওপর (২৮ আগস্ট) সকালে তাদের একটি হনুমান দেখা যায়। এবার বরিশাল শহরে দেখা মিললো এক সাথে জোড়া দুইটি হলুমানের। তাদের দেখতে উৎসুক জনতা ভিড় করছে।

মানুষের কোলাহলে আতঙ্কিত হয়ে সে স্থান থেকে অন্য স্থানে চলে যাচ্ছে হনুমান দুটি। এদিকে হলুমান দুটির দেখতে এবং তাদের ছবি তুলতে দেখা গেছে চোখে পড়ার মত ভিড়। জেলাখানার মোড় এলাকার বাসিন্দা কবির সরদার জানান, চারিদিকে উৎসুক জনতার কোলাহলে আতঙ্কিত হয়ে দিক বিদিক ছোটাছুটি করতে দেখা গেছে হলুমান দুটির।

কোথাও নিজেকে নিরাপদ মনে করছে না হনুমানটি। গত ২৮ আগস্ট প্রথম কাশিপুর বাজার এলাকায় দেখা যায় হনুমান দুটিকে। হলুমানদুটি বর্তমানে বরিশাল শহরের জেলখানার মোড় এলাকায় কখনও গাছে আবার কখনও বাড়ির ছাদে রয়েছে।

ক্ষুদার্ত হলুমান দুটি খাবারের খোজেঁ নিচে নেমে আশপাশের এলাকায় ঘুরে ফিরে আবারো এসে বিভিন্ন বাড়ির ছাদে আশ্রয় নিচ্ছে। হনুমানটির জন্য অনেকে রুটি,কলা সহ বিভিন্ন ফল খাবার কিনে দিচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে বরিশাল সদর উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার মুঠো ফোনে কথা বলার জন্য চেষ্টা করা হলে তা সম্ভব হয়নি।
সূত্র: আমার বরিশাল ২৪

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin