ধর্ম নিয়ে সোস্যাল মিডিয়ায় মতপ্রকাশে সতর্ক থাকুন- বরিশালে ধর্মপ্রতিমন্ত্রী

সিটি নিউজ ডেস্ক ‍॥ বিশ্বের কোনো ধর্মই খারাপ কাজকে সমর্থন করে না জানিয়ে ধর্মীয় বিষয় নিয়ে ফেসবুকে মতপ্রকাশে সতর্ক থাকতে বলেছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান। দেশে ধর্ম নিয়ে একটি পক্ষ নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে চায় জানিয়ে তাদের বিষয়েও সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

ব‌রিশাল নগরীর কাশিপুরে ইসলামিক ফাউন্ডেশন কার্যালয়ে মঙ্গলবার দুপু‌রে ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনতামূলক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আয়োজনে ছিল ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়।

অনুষ্ঠানে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘পৃথিবীর কোনো ধর্মই খারাপ কাজ, হিংসা, জঙ্গিবাদ সমর্থন করে না। তাই ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ধর্মীয় বিষয়ে মতপ্রকাশের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে।

‘খেয়াল রাখতে হবে আপনার স্ট্যাটাসে কারও মনে আঘাত লাগল কি না। এক শ্রেণির অসাধু লোক নৈরাজ্য সৃষ্টি করে দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে রুখে দিতে চায়। এদের ষড়যন্ত্রের ব্যাপারে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু প্রণীত বাংলাদেশের সংবিধানে অসাম্প্রদায়িক দেশের কথা বলা হয়েছে। যেখানে প্রত্যেক ধর্মের মানুষ নিজ নিজ ধর্ম পালন করবে।

‘আমরা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছি। আমরা যে ধর্মেরই অনুসারী হই না কেন, মানুষ হিসেবে প্রত্যেকের প্রতি আমাদের দায়িত্ব রয়েছে।’

বরিশালের জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব একেএম আবদুল আউয়াল হাওলাদার, বরিশাল জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) শাহজাহান হোসেন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বিভাগীয় কার্যালয়ের উপপরিচালক রফিকুল ইসলাম।

অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন বরিশাল বায়তুল মোকাররম মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা মো. শামসুল আলম, বরিশাল হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি সুরঞ্জিত দত্ত লিটু, বরিশাল উদয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক লিন্টু আন্দ্রীয় হালদার।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin