বরিশাল সদরের রায়পাশা কড়াপুরে ঘুর্ণিঝড়ে গাছ পড়ে বসতঘর’র ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি  

স্টাফ রিপোর্টার::  বরিশাল সদর উপজেলার ১ নং রায়পাশা কড়াপুর ইউনিয়নের শিবপাশা এলাকায় গাছ পড়ে বসতঘর ভেঙে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি। 

রায়পাশা কড়াপুর ইউনিয়নের শিবপাশা ৮ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মো: সত্তার আরিন্দা ছেলে মো: বেলাল হোসেন এর বসতঘর -পাকঘর ও গরুঘর এই তিনটি ঘরের ওপর রেন্টি, চাম্বল, মেহগনিসহ কয়েকটি গাছ উল্টে পরলে দুমড়ে মুচড়ে পরে ঘরে থাকা আসবাপত্র সহ টিভি ফ্রিজ,আলমারি, সুকেজ। অল্পতেই রক্ষা পায় ওই বসতঘরে থাকা নারী ও শিশুরা।

দমকা হাওয়ায় সাথে বিশাল আকৃতির গাছ গুলো ঘরের উপর পরলে নিচে থাকা মানুষের ডাক চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এসে তাদের উদ্ধার করে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিয়ে যায়।  এতেকরে বসতঘর ভেঙে গেলেও কেউ আহত হয়নি বলে জানিয়েছেন বেল্লাল হোসেন। 

তিনি বলেন প্রতিবেশী মৃত, কাসেম মীরের ছেলে আবদুল মালেক মীরের লাগানো রেন্টি, চাম্বল, মেহগনি গাছ গুলো ইতি পুর্বে গাছের মালিক আ:  মালেক মীরকে কয়েক বার কেটে সরাতে বল্লেও মালেক তা কর্ণপাত করেনি বং বিষয় টা না শোনার মত সময় পার করছেন।

গতকাল সোমবার ঘুর্ণিঝড় রেমাল এর তান্ডবে গাছ উল্টে ব্যাপক খতি সাধন হয়, মো: বেলাল হোসেনের দোতলা টিনের বাড়িটি। মো: বেলাল হোসেন আরও জানায় মাত্র ৭/৮ মাস পুর্বে প্রায় সাড়ে তিন লাখ টাকা খরচ করে তৈরি করা এই ঘর নিমিষেই দুমড়ে মুচড়ে পড়ে।

ঝড় হাওয়ার আগে প্রতিবেশী মৃত, কাসেম মীরের ছেলে মালেক মীরকে একাধিক বার বলা সত্ত্বেও ওই গাছ কেটে নেয় নি তিনি, এবিষয় স্থানয়ী ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদীন বলেন সরজমিনে গিয়ে দেখে আসছি দুই পক্ষ নিয়ে কথা বলে একটা ভালো সমাধান করে দেয়ার চেষ্টা করা হবে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin