বঙ্গবন্ধু’র প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন-ফাতেহা পাঠ ও মোনাজাতে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী

দুই দিনের ব্যক্তিগত সফরে শুক্রবার (৫ জুলাই) গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সিটি নিউজ ডেস্ক :: এ সফরে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন ও কবর জিয়ারত, বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিবিজড়িত গিমাডাঙ্গা টুঙ্গীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে (জিটি স্কুল) বঙ্গবন্ধু কর্ণার উদ্বোধন ও শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা-উপকরণ বিতরণ এবং দলীয় নেতৃবৃন্দের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়সহ কিছু কর্মসূচীতে অংশ নিবেন বলে জানা গেছে।

প্রধানমন্ত্রীর আগমনের খবরে স্বাভাবিক কারণেই প্রাণ-চঞ্চল হয়ে উঠেছেন দলীয় নেতাকর্মীরা। প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থাসহ নেওয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। ইতিমধ্যে বঙ্গবন্ধু মাজার কমপ্লেক্সসহ তার গন্তব্যস্থলগুলোর পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা ও শোভা বর্ধনের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর আগমনের অপেক্ষায় রয়েছেন দলীয় নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পদ্মা সেতুর দ্বিতীয়-বার্ষিকী উপলক্ষে শুক্রবার মুন্সীগঞ্জে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই অনুষ্ঠান শেষে তিনি সড়কপথে টুঙ্গীপাড়ায় যান। সেখানে পৌঁছে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং পবিত্র ফাতেহা পাঠ ও মোনাজাতে অংশ নেন।

শনিবার (৬ জুলাই) তিনি গিমাডাঙ্গা-টুঙ্গীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে (জিটি স্কুল) বঙ্গবন্ধু কর্ণার উদ্বোধন করবেন এবং শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা-উপকরণ বিতরণ করবেন। পরে বিকেলে তিনি ঢাকায় ফিরে যাবেন। এছাড়াও টুঙ্গীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে দলীয় নেতৃবৃন্দের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করতে পারেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

জেলা প্রশাসক কাজী মাহ্বুবুল আলম জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ সফরকে ঘিরে জেলায় কঠোর নিরাপত্তা-ব্যবস্থাসহ ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে সেসময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং পবিত্র ফাতেহা পাঠ ও মোনাজাতে অংশ নেন পরিবারের সদস্য শেখ হেলাল এমপি,বরিশাল সিটি মেয়র আবুল খায়ের আবদুল্লাহ্ (খোকন সেরনিয়াবাত), শেখ তন্ময় এমপি প্রমখ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin